শ্রীনগরে প্রেমের টানে গৃহবধু উধাও: থানায় অপহরণ মামলা

আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে প্রেমের টানে প্রেমিকের হাত ধরে এক প্রবাসীর স্ত্রী উধাও হয়ে গেছে। স্ত্রীকে ফিরে পাওয়ার জন্য গত বৃহস্পতিবার তার স্বামী উপজেলার বাড়ৈখালী এলাকার সিংগাপুর প্রবাসী পংকজ মন্ডল (৩৫) শ্রীনগর থানায় একটি অপরহন মামলা করেছেন। মামলা করার পর পুলিশের অনুসন্ধ্যানে বের হয়ে আসে পংকজ মন্ডলের স্ত্রী আশা পোদ্দার ( ২৩) কে অপহরণ করা হয়নি।

এক সপ্তাহ আগে সে প্রেমের টানে খুলনার সুমন কুমার (২৬) নামে এক যুবকের হাত ধরে পালিয়ে গেছে। যাওয়ার সময় নিয়ে গেছে স্বামীর কষ্টার্জিত অর্থ ও স্বর্ণালংকার। পুলিশ জানায়, শ্রীনগর পোদ্দার পাড়ার তপন পোদ্দারেরমে মেয়ে আশা পোদ্দারের সাথে সাড়ে আট বছর পূর্বে পংকজ মন্ডলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর পংকজ মন্ডল সিংগাপুর চলে যান।

মাঝে দুএকবার দেশে আসলেও বেশী দিন থাকেননি। তাদের সংসারে কোন সন্তানও নেই। স্বামীর অবর্তমানে আশা বেশীর ভাগ সময় তার বাবার বাড়ীতে অবস্থান করত। এসুবাদে তার সাথে খুলনা সদরের সুমন কুমারের মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। কিছুদিন পূর্বে পংকজ মন্ডল দেশে আসলেও সুমনের প্রেমে হাবু ডুবু খাওয়া আশার সাথে তার স্বামীর বনিবনা হচ্ছিলনা। ফলে এক সপ্তাহ আগে সুমনের হাত ধরে আশা পালিয়ে যায়।

শ্রীনগর থানা পুলিশ জানায়, আশা তাদেরকে মোবাইল ফোনে জানায় তাকে অপহরণ করা হয়নি। সে সেচ্ছায় সুমনের হাত ধরে পালিয়েছে। বিয়ের পর থেকে পংকজ শুধু টাকার পিছনে ছুটেছে তার দিকে তাকানোর সময় পংকজের হয়নি। পংকজ তাকে প্রতিমাসে টাকা দিয়েছে কিন্তুু ওই টাকায় সুখ ছিলনা। তার সুখ সে নিজে খুজেঁ নিয়েছে। এনিয়ে পংকজকে বাড়াবাড়ি না করার জন্যও সে পুলিশকে জানায়। মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা আলমগীর কবির জানান, শ্রীনগরে এরকম ঘটনা অহরহ ঘটছে।

Comments are closed.