গ্রেফতার: ছাত্রদল নেতা তুষার গ্রেফতার

আজ সোমবার দুপুর ২টার দিকে তুষারকে মুন্সীগঞ্জ সদর থানা থেকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অবশেষে এক তরফাভাবে শফিকুল হাসান তুষার কে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গতকাল দু’গ্রুপের মধ্যেই হামলার ঘটনা ঘটে। অন্য গ্রুপের কাউকে পুলিশ এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গ্রেফতার করেনি। তুষার উত্তর ইসলামপুর গ্রামের মাদক ব্যবসায়িদের গড ফাদার বলে অভিযোগ উঠেছে। বড় ভাইয়ের প্রভাবে তুষার মাদকসহ এলাকায় অন্যান্য অপরাধের সাথে জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে। অনেক দেরিতে হলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করায় এলাকায় আনন্দের বন্যা বইছে।

রাজনৈতিকভাবে শফিকুল হাসান তুষার মুন্সীগঞ্জ শহর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি। তাদের পরিবারের সদস্যরা বিএনপি’র ঘরনার লোক। তুষার জেলা বাল্কহেড সমিতির যুগ্ন-সম্পাদক এর দায়িত্ব পালন করছেন।

রোববার রাতে সদর থানার পুলিশ মোবাইল ফোনে তুষারকে থানায় ডেকে নিয়ে যায়। তুষার থানায় গেলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

গতকাল বিকেলে আনোয়ারের নেতৃত্বে ১৫-২০ জনের একটি দল উত্তর ইসলামপুরে তুষার ওপর হামলা চালায়। এ সময় উভয় গ্রুপের মধ্যে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ৪ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করে।

তুষার ৭ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি ও একই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কামাল হোসেনের ছোট ভাই।

আনোয়ার হোসেন হচ্ছে ৩ নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও একই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মকবুল হোসেনের ছোট ভাই।

তুষারের বিরুদ্ধে সদর থানার এসআই শেখ সাদি বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন বলে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ইউনুচ আলী জানিয়েছেন।

বিক্রমপুর সংবাদ

Comments are closed.