লঞ্চ-বাল্কহেড সংঘর্ষ: প্রায় দেড়শত যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চরে

মুন্সীগঞ্জ গজারিয়া উপজেলার কালিপুরা গ্রামের মেঘনা নদীতে অজ্ঞাত এক বাল্কহেডের সংঘর্ষে এম,ভি আল্লাহর মরজি নামের লঞ্চের তলা ফেটে যায়। এতে লঞ্চের যাত্রীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। পরে চালকের কৌশলে অল্পের জন্য রক্ষা পায় প্রায় দেড়শতাধিক যাত্রী।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় কালিপুরার গুচ্ছগ্রাম চরে সংঘর্ষের পর লঞ্চটি নোঙ্গোর করা হয়। এর আগে বরগুনা থেকে দ্বিতল লঞ্চটি ঢাকার উদ্দেশ্যে সকাল ৭ টার দিকে রওনা হয়।

গজারিয়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এবিএমএস দোহা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বাল্কহেডটি না দেখতে পেয়ে লঞ্চটি সজোরে ধাক্কা দেয়। ঘটনার পরপরই এমভি আল্লাহর মরজি লঞ্চটির কিছু অংশ ফেটে পানি প্রবেশ করতে থাকে। লঞ্চ চালক তাৎক্ষণিক লঞ্চটিকে কালিপুরা গুচ্ছগ্রাম চরে নোঙ্গর করে। বৃষ্টির কারণে লঞ্চ পারের খুব কাছ দিয়ে চলে বলে অল্পের জন্য বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেলো শত যাত্রী সাধারণ।

তিনি আরো জানান, ঘটনার পরপরই গজারিয়া পুলিশ সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয় এবং যাত্রীদের স্ব স্ব গন্তব্যে পাঠানোর ব্যবস্থা পক্রিয়াধীন। তবে এঘটনায় কোন হতাহতের সন্ধান পাওয়া যায়নি এখনো।

শীর্ষ নিউজ

Comments are closed.