অপহরণ : আশুলিয়ায় অপহৃত ইউপি চেয়ারম্যান উদ্ধার আটক ৪

অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবির প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর অপহৃত ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদকে (৭৩) উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। বুধবার দুপুরে সাভারের রেডিও কলোনি জালেশ্বর এলাকার মটরের বাড়ি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

অপহৃত আব্দুর রশিদ মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানার শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান পদে দায়িত্বরত রয়েছেন।

এ সময় ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ৪ জনকে আটক করা হলেও অপহরণকারী চক্রের মূল হোতা কামরুল হাসান বিপ্লব (৪০) ও রাসেল (৩০) কৌশলে পালিয়ে যায়।

আটকরা হলো- অপহরণকারী চক্রের মূল হোতা কামরুল হাসান বিপ্লবের স্ত্রী মিতু আক্তার (৩২), বোন আলেয়া আক্তার (৩৫), ভাগ্নী জামাই মো. খোকন (৩০) ও প্রতিবেশী আব্দুল রহিম। এদের প্রত্যেকের গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং থানা এলাকায় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অপহৃত আব্দুর রশিদ জানান, মঙ্গলবার বিকালে ব্যক্তিগত প্রয়োজনে আশুলিয়ার নবীনগর এলাকায় আসলে অপহরণকারীরা তাকে একটি পাইভেটকারে করে তুলে নিয়ে যায়। প্রথমে উত্তরা ও পরে সাভারের জালেশ্বর এলাকায় কামরুল হাসান বিপ্লবের বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে।

এ সময় অপহরণকারী চক্রের সদস্যরা একটি মেয়েকে দিয়ে আব্দুর রশিদের সাথে অশ্লীল ছবি তুলে তা প্রকাশের ভয়-ভীতি দেখিয়ে পরিবারের সদস্যদের কাছে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন এবং বিকাশের মাধ্যমে ১ লক্ষ টাকা আদায় করেন।

এ ঘটনায় অপহৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে শিবালয় ও আশুলিয়া থানায় পৃথক ২টি সাধারণ ডায়েরি করা হলে সাভার সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) নাজমুল হাসানের নেতৃত্বে আশুলিয়া থানা পুলিশ সাভারের জালেশ্বর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অপহৃত ইউপি চেয়ারম্যানকে উদ্ধারসহ ৪ জনকে আটক করেন।

এ ব্যাপারে সাভার সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) নাজমুল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ব্রেকিংনিউজকে বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করা হবে বলেও জানান তিনি।

ব্রেকিংনিউজ

Comments are closed.