শিপিংইয়ার্ড এলাকায় নদীভাঙন (ভিডিও সহ)

সুমিত সরকার সুমন: মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কুমারভোগে পদ্মাসেতু প্রকল্পের শিপিংইয়ার্ড এলাকায় পদ্মার ভাঙনে ২৫০ মিটার পাড় নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। এ সময় সেতুর পাইলিংয়ে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম স্রোতের তোরে নদীতে ভেসে যায়।

মঙ্গলবার (২৩ জুন) বিকেল ৩টার থেকে ৫টা পর্যন্ত কুমারভোগ ইউনিয়নের শিমুলিয়া ফেরি ঘাট সংলগ্ন এলাকায় পরপর তিন দফা ভাঙ্গনের ফলে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান কর্তৃপক্ষ।

পদ্মাসেতু প্রকল্প ব্যবস্থাপক আব্দুল কাদের সাংবাদিকদের এসব ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে আরো জানান, বিকেলে ওই এলাকায় সেতুর পাইলিং কাজ চলছিল। সাড়ে ৩টার দিকে আকস্মিক পদ্মার ভাঙন দেখা দেয়। এতে তিন দফায় ২৫০ মিটারের মতো পাড় ভেঙে নদীতে চলে যায়। তবে , ভাঙন আরো বাড়তে পারে। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করা সম্ভব হয়নি।

লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) মোঃ রিজাউল হক জানান, শিমুলিউলিয়া ফেরি ঘাট এলাকায় পদ্মাসেতু প্রকল্পের শিপিংইয়ার্ডের সরঞ্জাম রাখার স্থানটি বালু দিয়ে ভরাট করে নতুন নির্মাণ করা হয়েছিলো। বর্ষার কারনে জল বৃদ্ধি পেলে ওই এলাকার বেশকিছু জায়গা ডেবে যায়। তিনি আরো জানান, পদ্মা সেতুর মুল পাইলিং যেখানে হচ্ছে তা ঘটনাস্থল থেকে ৫/৬ কিঃমিঃ দূরে। তাই নদীভাঙনে সেতুর পাইলিংয়ের কোন সমস্যা নেই।#

বিডিলাইভ

Comments are closed.