মালখানগরে মসজিদের সানসেট নির্মাণ নিয়ে দুই পক্ষের মারামারি

সুমিত সরকার সুমন: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের কাজীরবাগ ভুইয়া বাড়ি মসজিদের সানসেট নির্মাণ নিয়ে দুই পক্ষের মারামারিতে মহিলা সহ ৫ জন আহত হয়েছে। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মঙ্গলবার বলা ১১ টায় এ নিয়ে গ্রাম্য আদালত মালখানগর ইউপিতে মো. রবিন ভুইয়া (৩০) বাদী হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে।

রবিন জানান, আনিছ মৃধা মালখানগর ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি হওয়ায় তার দাপট ও ক্ষমতার কাছে আমরা এলাকাবাসী জিম্মি। একটু কিছু হলেই তার ভাই ও তার লোক জন মারধর করতে আসে। এলাকাবাসী ভয়ে কিছু বলতে সাহস পায়না। সোমবার আমাকে মসজিদে ডেকে নিয়ে সে মারধর করে। মসজিদের সানসেটে টিন লাগানোর দায়িত্ব মসজিদ থেকে আমাকে দেওয়া হয়েছে। কাজটা করতে আমার একটু দেরী হওয়ায় আমাকে তো মারধর করেছে।

পরদিন সোমবার আমার মা মনোয়ারা বেগম (৪৮) ও ছোট ভাই মো. নাহিদ ভুইয়া (১৪) কে পিটিয়ে আহত করে। তাদের স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ব্যপারটা আমি উপজেলা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদকে জানিয়েছি।

এ ব্যাপারে আ’লীগের ইউপি সভাপতি আনিছুর রহমান মৃধা জানান, কোন মহিলাকে মারধর করা হয় নাই। এক বছর ধরে রবিনকে সানসেট লাগানোর কাজ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কাজটা দেই দিচ্ছি বলে ঘুরাচ্ছে। আমি মসজিদ কমিটির সভাপতি হিসেবে ওকে কয়েকবার সময় দিয়েছি কিন্তু তাও কাজটি করে দিচ্ছে না টাকা কিছু অগ্রীম দেওয়া হয়েছে। ওকে জিজ্ঞাসা করা হলে বেয়াদবি করায় থাপ্পর দেওয়া হয়। এ নিয়ে ওর ভাই লোকজন নিয়ে আসে আমার হাত কেটে ফেলবে। খবর পেয়ে আমার ভাই বাড়ির লোক জন এগিয়ে যাওয়ায় মারামারি হয়।

বিডিলাইভ

Comments are closed.