শ্রীনগরে গোপনে বিদ্যালয়ের গাছ বিক্রি : ৩ লাখ টাকা ভাগ বাটোয়ারা

আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে নিয়ম বর্হিভূত ভাবে গোপনে বিদ্যালয়ের ১১ টি গাছ ৩ লাখ টাকায় বিক্রি করে তা বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও প্রধান শিক্ষক ভাগ-বাটোয়ারা করে নিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

আজ বৃহস্পতিবার উপজেলার বাঘড়া স্বরুপ চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় ৫০ বছরের পুরনো বড় আকারের ৪ টি রেইনট্রি কেটে ফেলা হয়েছে। বাকি গাছ গুলো কাঁটার প্রক্রিয়া চলছে। গাছগুলোর ক্রেতা ফিরোজ মাদবর, স্বপন, সুমন জানান, গাছ কাটা শুরু করার পূর্বেই সম্পূর্ণ টাকা পরিশোধ করা হয়েছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেন জানান, বড় আকারের ৪ টি রেইনট্রি বিক্রি করা হয়েছে ২ লাখ ৬ হাজার টাকায়, ৩ টি গাছ বিক্রি হয়েছে ৭৫ হাজার টাকায় বাকি ৪ টি গাছ ৩২ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। তিনি টাকা ভাগ বাটোয়ারার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সিদ্ধন্ত অনুযায়ীই গাছগুলো বিক্রি করা হয়েছে। টেন্ডারের মাধ্যমে গাছ বিক্রি হয়নি বলে তিনি স্বীকার করেন।

এব্যাপারে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাইদুর রহমান পিন্টু বলেন, গাছ বিক্রির সময় তিনি উপস্থিত ছিলেন না। তবে গাছ বিক্রির টাকায় শিক্ষকদের বাস ভবন নির্মান করা হবে।

এলাকাবাসী জানায়, প্রকাশ্যে গাছ গুলো বিক্রি হলে দ্বিগুন মূল্য পাওয়া যেত। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আজিজুল হক বলেন, বিদ্যালয়ের গাছ বিক্রির জন্য উপজেলা কমিটি রয়েছে। প্রকাশ্যে টেন্ডারের মাধ্যমে তা বিক্রির নিয়ম। এক্ষেত্রে উপজেলা কমিটির কাউকে তা জানানো হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহানারা বেগম জানান, গাছ বিক্রির বিষয়ে তিনি অবহিত নন ।তবে এব্যাপারে খোজ নিয়ে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

Comments are closed.