অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে সবস্ব খুইয়েছেন মিরপুরের মাহাবুব

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে অজ্ঞান পার্টির তৎপরতা বৃদ্ধি
ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে অজ্ঞান পার্টির তৎপরতা বৃদ্ধি পরেয়ে। প্রায় প্রতিদিন কেউনা কেউ এ পার্টির খপ্পরে পরে নিজেদের সব কিছু হারাচ্ছেন। এমন কি অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে জীনব পড়ছে ঝুকির মধ্যে। বুধবার অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পরে সর্বস্ব খুইয়েছেন মাহাবুব খান (৪০) নামে এক বক্তি। তার পিতার নাম আলী হোসেন খান। সে ঢাকার ৩/২০ মিরপুরের বাসিন্দা। বুধবার ঢাকার গুলিস্থান থেকে প্রচেষ্টা পরিবহনের একটি বাসে করে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক হয়ে বরিশাল শ্বশুর বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় মো. মাহাবুব খান। পথিমধ্যে হকারের কাছ থেকে খাবার কিনে খেয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ের সে।

এসময় অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা তার কাছে থাকা নগদ ৬০ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল সেট নিয়ে কেটে পড়ে। বাসটি মাওয়া ঘাটে এসে পৌছলে বাস শ্রমিকরা তাকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে ঘাটে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয়রা তার পকেট তল্লাশি করে মোবাইল নাম্বার উদ্ধার করে তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে। মাহাবুবের স্ত্রী পারভীন বেগম এসে দুপুরে তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে গেছে।

এ ব্যাপরে মাওয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই ইউনুছ আলী জানান, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি অবগত নয়। তবে তিনি স্বীকার করেন, এ রুটে সম্প্রতি অজ্ঞান পার্টির উৎপাত বেড়ে গেছে। প্রতিদিনই কেউ না কেউ এ পার্টির খপ্পরে পরে সর্বস্ব হারাচ্ছেন। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য অনেক সময় পুলিশের পকেট থেকে টাকা খরচ করে হাসপাতের চিকিৎসা ব্যায় বহন করা হচ্ছে।

মুন্সিগঞ্জেরকাগজ

Comments are closed.