দক্ষিণে রেজা, উত্তরে মাহিকে আসল বিএনপির সমর্থন

আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে ঢাকা উত্তরে মাহি বি চৌধুরীকে এবং দক্ষিণে ড. রেজা চৌধুরীকে সমর্থন দিয়েছে কামরুল হাসান নাসিম’র নেতৃত্বাধীন আসল বিএনপি।

বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) রাজধানীর একটি হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ সমর্থনের কথা জানান তিনি।

সমর্থন দেওয়ার বিষয়ে কামরুল হাসান নাসিম বলেন, ঢাকা উত্তর অথবা দক্ষিণ, কোনো সিটি করপোরেশনেই বিএনপির বৈধ প্রার্থী নেই।

দক্ষিণে যাকে বিএনপির প্রার্থী বলা হচ্ছে, সেই মির্জা আব্বাস অবৈধ। তিনি ক্ষমতাসীন দলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে তাদের স্বার্থ সংরক্ষণে নিয়োজিত রয়েছেন। দুর্নীতিবাজ এমন ব্যক্তি (মির্জা আব্বাস) কিছুতেই বিএনপির প্রার্থী হতে পারেন না। আমি মনে করি দক্ষিণে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে ড. রেজা চৌধুরীকে বিএনপির সমর্থন দেওয়া উচিত।

আর উত্তরে জাতীয়তাবাদী চেতনায় বিশ্বাসী মাহি বি চৌধুরীকে সমর্থন দেওয়া যেতে পারে। যেহেতু তিনি ‘অবৈধ’ বিএনপির মনোনিত প্রার্থী নন এবং খালেদা জিয়ার কাছে তিনি জাতীয়তাবাদী চেতনায় বিশ্বাসী হিসেবে সমর্থন চেয়েছেন তাই, তাকে আমরা উত্তরের মেয়র প্রার্থী হিসেবে সমর্থন করছি।

খালেদা জিয়ার সমর্থন চাওয়া মাহি বি চৌধুরীকে সমর্থন দেওয়ার কারণ কি? জানতে চাইলে কামরুল হাসান বলেন, মাহি বি চৌধুরী জাতীয়তাবাদী চেতনায় বিশ্বাসী। তাছাড়া আমরা মেধাভিত্তিক নেতৃত্ব চাই। সেদিক বিবেচনা করেই আমরা মনে করছি মাহি বি চৌধুরীই যোগ্য প্রার্থী।

সংবাদ সম্মেলনে কামরুল হাসান বলেন, যে পর্যন্ত কাউন্সিল না হচ্ছে সে পর্যন্ত বিএনপি যাকেই সমর্থন দিক তিনি ‘অবৈধ’। বিএনপির বর্তমান শীর্ষ নেতৃত্ব শুধু অবৈধ নয়, আক্ষরিক অর্থে ব্যর্থও। দলের দুই শীর্ষ নেতৃত্ব খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান রাজনৈতিক ‘অপশক্তির ধারক’ হয়ে পড়েছেন।

দলীয় গণতন্ত্রের উদাহরণ সৃষ্টি করে আবার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যাবে বিএনপি। কে কার সহধর্মিনী বা পুত্র তা দেখার অবকাশ ক্ষীণ করে দলকে শক্তিশালী করা উচিত, বলেন কামরুল হাসান।

তিনি বলেন, বিএনপি নেতারা আমাকে ভ‍ুল বুঝছেন। কেউ কেউ আমাকে আওয়ামী লীগের দালাল বলছেন। তবে ভ‍ুল বোঝার অবসানের সময় এখন। ইতিমধ্যে অধিকাংশ নেতারা খালেদা জিয়ার ‘স্বৈরাচারী’ আদেশ মেনে চলার মানসে নেই।

কামরুল হাসান আরও বলেন, আসল বিএনপি বিশ্বাস করে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান তাদের ভুল বুঝতে পেরে নেতৃত্ব থেকে সরে যাবেন। তারা জাতীয়তাবাদী শক্তির ঐক্যের প্রতীক হওয়ার প্রচেষ্টা থেকে নিজেদের বিরত রাখবেন এবং যোগ্য নেতৃত্বের হাতে দল ছাড়বেন।

আগামী ৮ মে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে একটি মহাসমাবেশ আয়োজনের কথা ‍জানান কামরুল হাসান। সমাবেশে লক্ষাধিক মানুষ জড়ো হবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

Comments are closed.