জনগণকে আদালতের বিচার সম্পর্কে সচেতন করতে হবে

মুন্সীগঞ্জের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ এম আতোয়ার রহমান বলেছেন, জনগণকে আদালতের বিচার সম্পর্কে সচেতন করতে হবে। তাদের মাঝে বিশ্বাস জন্মাতে হবে যে আদালতে আসলে সকল মানুষই ন্যায় বিচার পাবেন। আদালতের বাইরেও বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি হয়ে থাকে। বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তিকে উত্সাহিত করতে হবে। কারণ বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি করা গেলে উভয়পক্ষ সন্তুষ্ট হয়। তাই বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির আইনগত বিধি-বিধান যথাযথভাবে অনুসরণ পূর্বক বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তিতে গুরুত্বারোপের নির্দেশনা দিয়ে তিনি বিচারকদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।’ শনিবার মুন্সীগঞ্জ জেলা জজ আদালতের সম্মেলন কক্ষে দিনব্যাপী ত্রৈমাসিক বিচার বিভাগীয় সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

সম্মেলনে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. হেলাল উদ্দিন বলেন, ’আইনজীবী, পুলিশ এবং বিচারক সমন্বিতভাবে কাজ করলে ন্যায় বিচার ত্বরান্বিত হবে। জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল তার বক্তব্যে বলেন, ‘মুন্সীগঞ্জ একটি কর্মপরিবেশের স্থল। এটাকে কাজে লাগিয়ে বিচার বিভাগ, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন প্রত্যেকে স্ব স্ব দায়িত্ব নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করলে এবং বিবেকের কাছে দায়বদ্ধ থেকে কাজ করলে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।’

মুন্সীগঞ্জের সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ জনাব এম আতোয়ার রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. ফজলুল হক, পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, অতিরিক্ত জেলা জজ এ,কে,এম মোজাম্মেল হক চৌধুরী, সিভিল সার্জন মো. সহিদুল ইসলাম, যুগ্ম জেলা জজ মো. আবুল কাশেম ও মো. বজলুর রহমান, মুন্সীগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. আব্দুল মতিন, জিপি মো. লুত্ফর রহমানসহ জেলার বিচার বিভাগ, জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তাগণ এবং মুন্সীগঞ্জ বারের সিনিয়র আইনজীবীগণ।

বিডি-প্রতিদিন

Comments are closed.