মুন্সীগঞ্জে মেয়েকে নাইওর আনতে গিয়ে বাবার মৃত্যু

মাত্র তিনদিন আগে মুন্সিগঞ্জের এক পরিবারে বড় মেয়ের বিয়ে হয়েছে। ছোট দুই ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে খুব পরিপাটি হয়ে মেয়েকে নাইওর আনার জন্য মুন্সীগঞ্জে যাচ্ছিলেন বাবা। কিন্তু রাজধানীর গুলিস্তানে আসার পর তার পথযাত্রা থেমে যায়। ঘাতক একটি বাসের চাপায় প্রাণ হারায় বাবা আব্দুল গাফফার (৫০)। মেয়েকে নাইওর আনা হলো না ভাগ্যের নির্মমতার কাছে হেরে যাওয়া হতভাগা বাবার। নিহত গাফফারের নিথর দেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে গুলিস্তান-ফুলবাড়িয়া ফ্লাইওভারের নিচে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এরআগে সকালে দুই ছেলেকে নিয়ে সাভার থেকে ঢাকার ফুলবাড়িয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন গাফফার। দুপুরে ফুলবাড়িয়া পৌঁছে যায় তারা। এসময় রাস্তা পার হওয়ার সময় যাত্রীবাহী একটি তাকে ধাক্কা দেয়। পরে তাকে উদ্ধার করে দুপুর দেড়টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতর ছেলে সোহান জানান, তার বড়বোন শাকিলাকে নাইওর আনার জন্য বাবার সঙ্গে মুন্সীগঞ্জ যাচ্ছিলেন। তিনদিন আগে তার বড় বোনের বিয়ে হয়।

তিনি আরো জানান, তারা সাভার দক্ষিণ রাজাসন এলাকায় থাকেন। তার বাবা একটি সাভারের একটি টেক্সটাইল মিলে কাজ করতেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী ক্যাম্প ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেন্টু চন্দ্র দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শীর্ষ নিউজ

Comments are closed.