সিরাজদিখানের কুমারখালীতে গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার

সেলিনা ইসলাম: সিরাজদিখানে গৃহবধূর আত্মহত্যা মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বয়রাগাদী ইউনিয়নের কুমরাখালী গ্রামে নাজমিন আক্তার নাজু (২৫) নামের এক গৃহবধূ ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সোমবার গভীর রাতে স্বামী মনির হোসেনের বাড়িতে ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে এই ঘটনা ঘটে। নাজমিনের পিতার বাড়ি নারায়নগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানার বক্তাবলি গ্রামে। গতকাল বেলা ১২ টায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মৃতের বোন আমিনা জানান, তাদের বিয়ে হয়েছিল ৬ বছর আগে। স্বামী বিদেশে ব্রুনাই থাকে ২ বছর থেকে ছুটিতে এসেছিল। ৫ মাস আগে আবার ফিরে গেছে। টেলিফোনে দু জনের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। তবে কি নিয়ে ঝগড়া হতো কখনো বলেনি। নাজমিনের ৪ বছরের মোহনা নামে একটি মেয়ে রয়েছে।
নাজমিনের বাবা আঃ আউয়াল জানান, আমার মেয়ে ফাঁস দিতে পারে না। আমার বাড়ি দুরে কিভাবে কি হয়েছে আমি বলতে পারি না। তবে লাশ মাটিতে নামানো ছিল। লাশ ময়না তদন্তে পাঠাবে বলে পুলিশ অপমৃত্যু মামলায় আমার স্বাক্ষর নিয়েছে।

সিরাজদিখান থানার ওসি মোঃ ইয়ারদৌস হাসান জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা হতে পারে, পোষ্ট মটেম রিপোর্ট পেলেই বিস্তারিত বলা যাবে।

এশিয়াবার্তা

Comments are closed.