পদ্মার চরে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত?

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের পদ্মার চরে একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে। কতজন লোক মারা গেছে। হেলিকপ্টারটি কার? ভাই খবর পাইছেন ? হেলিকপ্টারটি কি পদ্মায় বিধ্বস্ত হয়েছে, না-কী পদ্মার চরে? মঙ্গলবার এমনি হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের খবর চাউর হয়ে পড়লে স্থানীয় সাংবাদিক, পুলিশ, ডিএসবি ও প্রশাসনের মধ্যে তোলপার শুরু হয়। কখনও পুলিশ ফোন করেছে সাংবাদিকদের কাছে আবার সাংবাদিকরা ফোন করেছে পুলিশ ও প্রশাসনে কর্মকর্তাদের কাছে। শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের প্রতিটি ফেরি মাস্টার, লঞ্চ ও সিবোট চালকদের কাছে ছুটোছুটি করেছে প্রশাসন, পুলিশ ও সাংবাদিকরা।

কিন্তু কোথাও এ খবরের সত্যতা খুজে পাওয়া যায়নি। বিষয়টি ¯্রফে গুজব বলেই জানা গেছে। এলাকাবসী সূত্রে জানা যায় গত সপ্তাহ দুই ধরে লৌহজংয়ের পদ্মা পারের পদ্মার চরে ভূমির অতি নিকটে একটি হেলিকপ্টার আসা-যাওয়া করছে। কখনও কখনও ভূমির খুব কাছে স্থির হয়ে হেলিকপ্টারটি শূন্যে কি জেনো খুঁজে ফিরছে। আর এ অবস্থায় হেলিকপ্টারটি যখন উপরের দিকে উঠে যায়, তখন মনে হয় হেলিকক্টারটি পরে যাচ্ছে।

সম্ভবত এমনিই কিছু দূর থেকে কেউ দেখতে পেয়ে ভেবেছে হেলিকপ্টারটি পদ্মায় বিধ্বস্ত হয়েছে। আর তা-ই রটে গিয়ে গুজব হিসেবে সারা জেলায় হেলিকপটার বিধ্বস্ত হবার খবর ছড়িয়ে পড়ে। তবে একটি সূত্র জানিয়েছে, সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে লৌহজংয়ের পদ্মার চরে একটি অলিম্পিক ভিলেজ তৈরীর জরিপ চলছে। সে কারণে মাঝে মধ্যেই জরিপ কাছে একটি হেলিকপ্টার পদ্মার চরের খুব কাছে থেকে পরিদর্শণ করে জরিপ করছে।

লৌহজং থানার ওসি তদন্ত মো. মফিজুর রহমান জানান, হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হবার খবর শুনেছি। সবদিকে খোঁজ খবর নিয়ে এ রকম কিছুর সত্যতা পাইনি। এটি স্রেফ গুজবই মনে হচ্ছে।

মুন্সিগঞ্জেরকাগজ

Comments are closed.