পুলিশ সুপারের বিচার দাবিতে বরগুনায় মানববন্ধন : যৌতুকের জন্য নির্যাতন

মুন্সীগঞ্জ থেকে প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সুপার মো. হাবিবুর রহমানের বিচারের দাবিতে তাঁর নিজের শহর বরগুনায় মানববন্ধন ও সমাবেশ হয়েছে। রোববার সকালে বরগুনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচি পালিত হয়।

মুন্সীগঞ্জ থেকে প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সুপার (এসপি) মো. হাবিবুর রহমানের বিচারের দাবিতে তাঁর নিজের শহর বরগুনায় মানববন্ধন ও সমাবেশ হয়েছে। স্থানীয় নাগরিক সমাজের উদ্যোগে ও এসপির নির্যাতিত স্ত্রী হালিমা আক্তারের পক্ষে আজ রোববার সকালে বরগুনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচি পালিত হয়।

কর্মসূচিতে অংশ নেয় স্থানীয় বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা। এ সময় বরগুনার জেলা প্রশাসক মীর জহুরুল ইসলামের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি জমা দেন বরগুনার নাগরিক সমাজ ও নারী নেত্রীরা।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, পুলিশ কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে যৌতুকের দাবিতে তাঁর স্ত্রী হালিমা আক্তারকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেছেন। একপর্যায়ে হালিমা আক্তারকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন এসপি হাবিব। এরপর হালিমা গত বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর বরগুনার আদালতে একটি মামলা করেন। মামলার পর আদালত হাবিবুর রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে গত ১৯ জানুয়ারি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। নিম্ন আদালতে এই রায়ের পর উচ্চ আদালতে জামিনের জন্য আবেদন করেন হাবিবুর। উচ্চ আদালত হাবিবুরকে চার সপ্তাহের সময় দিয়ে নিম্ন আদালতে হাজিরের নির্দেশ দিয়েছেন।

রোববার সকালে বরগুনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশে হাবিবুরের দুর্নীতিসহ নির্যাতনের বিচার চেয়ে বক্তব্য দেন তাঁর স্ত্রী হালিমা বেগম, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ বরগুনার সম্পাদক খাদিজা বেগম, নারীনেত্রী হোসনে আরা হাসি, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান, সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) জেলা সভাপতি আলহাজ আবদুর রব ফকির, বরগুনার সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট মো. শাহজাহান, বরগুনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মনির হোসেন কামাল প্রমুখ।

এনটিভি

Comments are closed.