বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুল ছাত্রী লাবনী

মুন্সীগঞ্জ সদরে বৃহস্পতিবার বিকেলে থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে লাবনী আক্তার (১৪) নামে এক স্কুল ছাত্রী। বাল্য বিয়ের আয়োজন করায় ছাত্রীর চাচা ও ফুপাকে আটক করেছে পুলিশ। পরে মুচলেকা দিয়ে সদর থানা হাজত থেকে মুক্তি পান চাচা আব্দুর রশীদ দেওয়ান ও ফুপা আলী আকবর।

সদর থানার ওসি আবুল খায়ের ফকির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বিকেল ৪ টার দিকে সদর উপজেলার আমঘাটা গ্রামে পারিবারিক ভাবে স্কুল ছাত্রী লাবনীর বিয়ের আয়োজন করে।

মাকহাটী জিসি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্রী লাবনী ওই গ্রামের নাছির উদ্দিন দেওয়ানের মেয়ে। বর হচ্ছেন- সদর উপজেলার দক্ষিন চরমুশুরা গ্রামের কুয়েত প্রবাসী মো: শাজাহান মিয়া (৩০)।

সদর থানার এসআই সাহেদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে আমঘাটা গ্রামে কনের বাড়িতে ছুটে যায় পুলিশ। এ সময় কনের চাচা ও ফুপাকে আটক করে পুলিশ।

এছাড়া বাল্য বিয়ে ভেঙ্গে দেওয়া হয়। প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত স্কুল ছাত্রীকে বিয়ে দিবেন না-বলে সদর থানা পুলিশের কাছে মুচলেকা দিয়ে বিকেল ৫ টার দিকে মুক্তি পান আটককৃত কনের চাচা ও ফুপা।

বিডিলাইভ

Comments are closed.