শ্রীনগরে স্ত্রীর পরকীয়ার জেড়ে আওয়ামীলীগ নেতার ভাই খুন!

আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে এক আওয়ামী লীগ নেতার ভাইয়ের হাত-পা ও মুখ বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল আটটার দিকে উপজেলার বিবন্দী গ্রামের একটি আলু ক্ষেত থেকে আতাউর রহমান (৪৫) এর লাশটি উদ্ধার করা হয়। সে কুকুটিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন মিন্টুর বড় ভাই।

শ্রীনগর থানার ওসি (তদন্ত) মুজিবুর রহমান জানান, ধারণা করা হচ্ছে স্ত্রীর পরকিয়ার কারণে আতাউর রহমানকে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ আতাউর রহমানের স্ত্রী চম্পা বেগম (৩৫), ছেলে ইফতি (১৪), মেয়ে লাজুক (১১), লামিয়া (৮) কে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করছে । পারিবারিক সূত্র জানায়, আতাউর রহমান দীর্ঘদিন জাপানে প্রবাসী ছিল। সে ঢাকার জুড়াইন এলাকায় বাড়ী নির্মান করে সেখানেই বসবাস করতো। মাঝে মাঝে গ্রামের বাড়ি বিবন্দী এলাকায় আসতো।

আতাউরের ভাই মিন্টু জানান, অনেক দিন ধরে তার ভাবীর বেপরোয়া চলাফেরার কারণে তার ভাইয়ের সাথে বনিবনা হচ্ছিলনা। এনিয়ে একাধিকবার পারিবারিক ভাবে সালিশ হয়েছে। গত ১ জানুয়ারী সে তালবলীগ জামায়াতের কথা বলে বাসা থেকে বের হয়। পরদিন আজ বৃহস্পতিবার সকালে আতাউর রহমানের গ্রামারে বাড়ির পাশের একটি জমিতে তার লাশ পাওয়া যায়।

খবর পেয়ে আতাউরের স্ত্রী, সন্তান ও আত্মীয় স্বজনরা ঘটনা স্থলে ছুটে আসেন। আতাউরের স্ত্রী চম্পা বেগম জানান, গত বুধবার বিকালে আতাউর আতœহত্যা করবে বলে তাকে ফোনে জানায়।পুলিশ জানায়, লাশের হাত-পা নাইলনের রশি ও মুখ লাল মাফলার দিয়ে বাধাঁ ছিল। এটি একটি হত্যাকান্ড। স্ত্রী চম্পা বেগম অসংলগ্ন কথা বলায় তাকে ও সন্তানদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এঘটনায় শ্রীনগর থানায় হত্যা মামলা দায়ের কার হয়েছে। পুলিশ লাশ ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ মর্গে প্রেরণ করেছে।