জিহাদের মরদেহ মাওয়া অতিক্রম করেছে

ঢাকার শাজাহানপুরে পরিত্যক্ত গর্তে পড়ে নিহত শিশু জিহাদের মৃতদেহ নিয়ে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুট অতিক্রম করেছেন তার স্বজনেরা। ময়নাতদন্ত শেষে দাফনের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে জিহাদের মরদেহ শরীয়তপুরের গ্রামের বাড়িতে নেওয়া হচ্ছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত (দুপুর আড়াইটা) মরদেহ বহনকারী গাড়ি মাওয়া-কাওড়াকান্দি অতিক্রম করে মাদারীপুর শহরে প্রবেশ করেছে।

মাওয়া কার্যালয়ের ট্রাফিক পরিদর্শক মো. আক্তার হোসেন বাংলানিউজকে জানান, জিহাদের মৃতদেহ নিয়ে তার মামা দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফেরি কেতকীতে চরে নৌরুট পাড়ি দেয়। দুপুর ২টা থেকে আড়াইটা নাগাদ নৌরুটে অতিক্রম করে মাদারীপুরে প্রবেশ করে।

জিহাদের মামা মনির হোসেন জানান, বিকেলের মধ্যে মৃতদেহ নিয়ে শরীয়তপুর জেলার গোঁসাইয়ের হাট থানার নাগরপাড়া গ্রামের বাড়িতে পৌঁছানোর আশা করছেন তারা। সেখানে নামাজে জানাজা শেষে শিশু জিহাদের মরদেহ দাফন করা হবে।

এর আগেই জিহাদের বাবা-মা গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুর নাগরপাড়া গ্রামের উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছেন।

শুক্রবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকার শাজাহানপুরে বন্ধুদের সঙ্গে খেলার সময় দুর্ঘটনাবশত শিশু জিহাদ (৪) পরিত্যক্ত গর্তের খোলা মুখ দিয়ে ৬’শ ফুট নিচে পড়ে যায়। রাতভর চেষ্টা করে ব্যর্থ হওয়ার পর শনিবার বিকেল ৩টার দিকে ওই গর্ত থেকে জিহাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

Comments are closed.