দক্ষিণ কেওয়ারে বিএনপি নেতার বাড়িঘর ভাঙচুর : আহত ৩

মোজাম্মেল হোসেন সজল: মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগ কর্মীরা হামলা চালিয়ে বিএনপি নেতার তিনটি বসতবাড়ি কুপিয়ে ভাঙচুর করেছে। এ সময় তার ছেলে ও পুত্রবধূ ও অপর এক যুবককে পিটিয়ে আহত করে ও রনি নামে এক যুবককে অপহরণ করে নিয়ে যায়। শুক্রবার রাত ৭ টার দিকে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মহাকালী ইউনিয়নের দক্ষিণ কেওয়ার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ক্ষতিগ্রস্থ শাহজাহান হালদার ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি। সন্ত্রাসী হামলায় আহতরা হলেন, ওই বিএনপি নেতার ছেলে আক্তার হোসেন (৩০), আক্তারের স্ত্রী মিতু (২২) ও একই এলাকার ইয়ানুস সিকদারের ছেলে রনি সিকদার (১৮)। এদেরমধ্যে রনিকে তারা অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে রাত ৮টার দিকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। আহত রনিকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিএনপি নেতা শাহজাহান হালদার জানান, রাত ৭টার পাশ্ববর্তী চরাঞ্চলের চরকেওয়ার ইউনিয়নের গজারিয়াকান্দি গ্রামের আওয়ামী লীগ কর্মী আবুলের নেতৃত্বে ২৫-৩০ জনের একদল সন্ত্রাসী তার বাড়িতে অর্তকিতে হামলা চালায়। এ সময় ছেলে ও পুত্রবধূ ঘরের দরজা না খুলায় দরজা ভেঙ্গে তাদের মারধর করে। ৩টি বসতঘর এলোপাতাড়িভাবে ভাঙচুর করে। এ সময় বাড়ির নারী-পুরুষদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে যাবার সময় রনিকে পিটিয়ে আহত করে অপহরণ করে নিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, ঘটনার সময় তিনি মসজিদে ছিলেন। বিএনপি করার কারনে আওয়ামী লীগ কর্মীরা তার বাড়িতে হামলা চালিয়েছে বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি আবুল খায়ের ফকির জানান, তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে সেখানে এ অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। ছেলেটিকে উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা

Comments are closed.