হানাদারমুক্ত দিবস উপলক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ডের কর্মসূচি গ্রহণ

১৯৭১-এর রক্তঝরা মাস ডিসেম্বর। ১১ ই ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় মুন্সীগঞ্জ। এ উপলক্ষ্যে জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমাণ্ড ব্যাপক কর্মসূচি পালনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমাণ্ড প্রাঙ্গণ থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হবে। র‌্যালিটি জুবলী রোড হয়ে জেলা শিল্পকলা একাডেমি ঘুরে প্রধান সড়ক ছবিঘর রোড দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ড প্রাঙ্গণে এসে শেষ হবে। পরে মুক্তিযোদ্ধা কমাণ্ড প্রাঙ্গণে সড়কে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন মুক্তিযুদ্ধকালীন ঢাকা বিভাগের বিএলএফ’র প্রধান ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন। মূখ্য আলোচক হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা পরিষদের চেয়ারম্যান সাবেক এসপি মাহবুবউদ্দিন আহমেদ, বীরবিক্রম। সভায় সভাপতিত্ব করবেন মুন্সীগঞ্জ জেলা ইউনিট কমাণ্ডের কমাণ্ডার আনিস উজ্জামান আনিস।

এছাড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথিদের মধ্যে রয়েছেন মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা এম ইদ্রিস আলী, মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য সুকুমার রঞ্জন ঘোষ, মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ লুৎফর রহমান, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল, পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, সরকারি হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র একেএম ইরাদত মানু।

এদিকে, মুক্তদিবস উপলক্ষ্যে মুন্সীগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমা- ভবন আলোকসজ্জা করা হয়েছে। এছাড়া, আলোচনা সভার মঞ্চ ও ডেকোরেশনের কাজও আজ সন্ধ্যার মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

পরে সন্ধ্যা ৬টায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমাণ্ড প্রাঙ্গণে।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা

Comments are closed.