সিরাজদিখানে জমি সংক্রান্ত সংঘর্ষে নববধূ হাসপাতালে : গহনা লুট

সেলিনা ইসলাম: সিরাজদিখানে জমি সংক্রান্ত জেরে নববধূ হাসপাতালে গহনা লুট সিরাজদিখানে জমি নিয়ে দ্বন্দে নববধূর গহনা সহ ২টি বাড়ী লুট হয়েছে। সংঘর্ষে দুই পক্ষে নববধূসহ ৬ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় বুধবার দুই পক্ষই থানায় অভিযোগ দাখিল করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার লতব্দি ইউনিয়নের কাঠসা গ্রামে। উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি গুরুতর আহত নববধূ নুরজাহান বেগমের (২৪) স্বামী আমির হামজা (৩০) জানান, পাশের গ্রাম নতুন চরের হোসেন আলীর ছেলে সিদ্দিকুর রহমানের কাছ থেকে আমি ১১ বছর ধরে জমি কিনেছি। জমি বুঝিয়ে না দিয়ে তার দলবল নিয়ে আমার বাড়ীতে হামলা করে। এসময় স্থানীয় ইউপি সদস্য তাদের সাথে এসে বাড়ীতে আক্রমন চালায়। বাড়ীর দলিল পত্র জোর করে নেওয়ার চেষ্টা করে নিতে না পেয়ে বাড়ীঘর লুট করে। আমি কুয়েত থেকে এসে ২ মাস হয় বিয়ে করেছি। আমার স্ত্রীর ৫ ভরি স্বর্ণ ও জমি রেজিস্ট্রির ১ লাখ টাকা নিয়ে যায় এবং ২ টি বসতঘর ভাংচুর করে। আমরা বাধা দিলে দা লাঠি সোটা দিয়ে মারধর করে। আমি ও আমার ভাই আল আমিন (২০) জখম হই। আর দুইজন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ী চলে গেছেন। আমার স্ত্রীর অবস্থা খুব খারাপ। অপর দিকে সিদ্দিকুর রহমান আহত হন।

লতব্দী ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক জানান, সিদ্দিক সহ তার লোকজন আমির হামজার বাড়ীতে গিয়ে মারধর করে, বাড়ী ঘরে লুটপাট করে আমির হামজার স্ত্রীকে অমানুষিক ভাবে মারধর করেছে। আমি মিমাংশা করতে চেয়েছিলাম, দুই পক্ষই থানায় অভিযোগ করেছে।

এশিয়া বার্তা