সিরাজদীখানে ছেলেকে জিম্মি করে মাকে পালাক্রমে ধর্ষন!

সুমিত সরকার সুমন: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখানে ছেলেকে ধারালো ছোরার মুখে জিম্মি করে মাকে পালাক্রমে ধর্ষন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার রাতে ১ ধর্ষককে গ্রেফতার ও থানায় ধর্ষন মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বালুরচর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে ধর্ষক জামাল হোসেনকে (২৬) গ্রেফতার করে পুলিশ। ধর্ষিতার স্বামী হোটল কর্মচারী (আনোয়ার হোসেন) বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামী করে এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে, আজ বুধবার বিকেলে ১৩ দিনের মাথায় ধর্ষন ঘটনাটি জানাজানি হয়। আজ দুপুরেই মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ধর্ষিতার ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। গ্রাম্য মাদবররা সালিশি বৈঠকের অজুহাতে কালক্ষেপন করে আসলে ধর্ষনের ঘটনাটি ধামাচাপা থাকে। তবে ১ ধর্ষক গ্রেফতার ও মামলা দায়ের করার পর ধর্ষনের ঘটনাটি বুধবার সর্বত্র জানাজানি হয়।

সিরাজদীখান থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান ধর্ষনের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, সিরাজদীখান উপজেলার বালুরচর ইউনিয়নের বালুরচর গ্রামে গত ১৩ নভেম্বর দিবাগত রাতে স্থানীয় বাজারের হোটেল কর্মচারীর (আনোয়ার হোসেন) বসত-ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে ৩ যুবক।

এ সময় হোটেল কর্মচারী বাজারে তার কর্মস্থলে ছিলেন। এই সুযোগে ৫ বছরের ছেলের বুকে ধারালো ছোরা ধরে তাকে মুখে জিম্মি করে মাকে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষন করে জামাল হোসেন (২৬), আওলাদ হোসেন (৩০) ও আনিছ মিয়া (২৯) নামে ওই ৩ যুবক।

এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে স্থানীয় মাদবররা সালিশি বৈঠক ডাকার অজুহাতে কালক্ষেপন করে আসছিল। তাই মামলা দায়েরে বিলম্ব হয় বলে দাবী করেন থানার ওই কর্মকর্তা।

বিডিলাইভ

Comments are closed.