তালতলা বাজারে শত বছরের ঐতিহ্য দশমী মেলা

sirajdikhan-melaমুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার তালতলা বাজারে গত রাত ১টায় দশমী মেলা, প্রতিমা প্রদর্শন এবং পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। কয়েক বছর ধরে তালতলা বাজার বণিক সমিতি এ দশমী মেলা, প্রতিমা প্রদর্শনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এ মেলাটি চলে।

মেলায় নাগর দোলা, বিভিন্ন খেলনা, মুখরোচক খাবারের পসরা বসে। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় এবারের মেলায় লোকের সমাগম কম ঘটে। কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে লোক জনের ব্যস্ততা ও রাস্তায় চলাচলের সমস্যার কারণে এবার প্রতিমা কম আসে।

মেলাটি যুগ যুগ ধরে জেলার এই বাজারে অনুষ্ঠিত হয়। এক সময় হিন্দু জমিদাররা এই মেলার আয়োজন করতেন। সে জন্য অনেকে বলেন শত বছরের বেশি হতে পারে তালতলা বাজারের দশমী মেলা। জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে এবারের মেলায় ৭ টি প্রতিমা অংশ গ্রহন করেন। অন্যান্য বছর ২৫-৩০ টি প্রতিমা অংশ গ্রহন করত।

প্রতিমা প্রদর্শনীতে এ’ গ্রুপে ১ম হয় টংগীবাড়ী উপজেলার চরছটফটিয়া গ্রামের হাওলাদার বাড়ী মন্ডপের প্রতিমা,তাকে ২১ ইঞ্চি এলইডি টিভি দেওয়া হয়।। ২য় হয় সিরাজদিখান উপজেলার চন্ডিবর্দি হিন্দু কল্যাণ যুব সংঘের প্রতিমা, ২১ ইঞ্চি রঙ্গিন টিভি দেওয়া হয়। বি’ গ্রুপে ১ম হয় মুন্সিগঞ্জ সদরের ইদ্রাকপুরের প্রতিমা, তাকে ১৯ ইঞ্চি এলইডি টিভি দেওয়া হয় । ২য় হয় সিরাজদিখানের ফেগুনাসার বীণা পানি সংঘের প্রতিমা, ২১ ইঞ্চি রঙ্গিন টিভি দেওয়া হয়।

প্রতিমা প্রদর্শনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, সিরাজদিখান উপজেলা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন। বণিক সমিতির সভাপতি মোঃ আবুল কাসেম মিয়ার সভাপতিত্বে প্রিয় শংকর বন্দোপাধ্যায়ের সঞ্চালনায় অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সীমা রানী ব্যানার্জী, কাজী নজরুল ইসলাম পিন্টু, অভিজিত দাস ববি, সুবির চক্রবর্ত্তি, আনিছ মৃধা, আফজাল হোসেন, নব কিশোর মজুমদার প্রমূখ।

বিডিলাইভ

Comments are closed.