সিরাজদিখানে ১ জন নিহতের ঘটনায় পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ

kamalরাস্তা অবরোধ, ২ পুলিশ কোজড
সেলিনা ইসলাম: মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখানে কামাল শেখ(৪৫) নামে একজন রাজ মিস্ত্রী সিএনজি চাপায় নিহতের ঘটনায় সোমবার সকাল সারে ১১টায় বাড়ৈইখালী শেখরনগর নীমতলা রাস্তা অবরোধ করে পুলিশের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেছে শেখেরনগর এলাকাবাসী। ঘটনার শেখেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত এসআই শফিক ও কনস্টেবল জুলফিকারকে কোজড করা হয়েছে এবং গ্রেফতার করা হয়েছে সিএনজি ড্রাইভার সুমন কে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, গত ববিবার রাত ৮টার সময় ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে আসা এক সিএনজি শেখরনগর কালী মন্দিরের সামনে যাত্রী নামিয়ে দ্রুত চলে যাওয়ার সময় শেখরনগর পুলিশ ক্যাম্পের সামনে দায়িত্বরত দুই পুলিশ সিএনজি ড্রাইভারকে সিগন্যাল দিলে সিএনজি ড্রাইভার সুমন সিএনজি নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যেতে চাইলে দৌড়ে দুই পুলিশ সিএনজিতে ওঠে। পুলিশ সিএনজি থামাতে চাইলে রাস্তায় দাড়িয়ে থাকা শেখরনগর ঘনশ্যামপুর গ্রামের মৃত মেখ তৈমদ্দির ছেলে শেখ ধনু ও শেখরনগর দক্ষিন হাটী গ্রামের মৃত নূরু মঝির ছেলে কামাল শেখ সিএনজির সাথে ধাক্কা খেয়ে রাস্তার পাশে বিদ্যুতের খুটির সাথে মাথায় ও বুকে চাপলেগে নাক-মুখ দিয়ে রক্ত বের হয়ে অজ্ঞান হয়ে পরে। সাথে সাথে এলাকার ও দোকানের লোকজন তাদেরকে প্রথমে মিডফোর্ড পরে ঢাকা মেডিকেল নেওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার কামালকে মৃত ঘোষনা করেন। আপর জন ঢাকায় ভর্তি শেখ ধনুর অবস্থা আশংকাজনক।
kamal
শেখরনগর ৬নং ওয়ার্ড সদস্য এমএ বারেক বলেন, পুলিশ সিএনজিতে ওঠে ধস্তাধস্তি না করলে কামাল গাড়ি চাপায় মারা যেতো না। গাড়ি কেনই বা ওরা সিগ্নেল দিয়ে থামাতে গেলো। এই অসহায় পরিবার কিভাবে চলবে। প্রত্যক্ষদর্শী দোকানদার শামীম বলেন, ঘটনার মাত্র কয়েক মিনিট আগে নাস্তা খাওযার বিল দিয়ে আমার হোটেল থেকে বের হয় ধনু শেখ ও কামাল দুজনে। হঠাৎ সিএনজি টা ওদের দুই জনকে চাপা দিল। মুহূর্ত্বে রক্তে এই জায়গাটা ভাইসা গেল।

নিহতের স্ত্রী কুসুম বেগম বলেন, আমারা দিন আনি দিন খাই, তিনটি সন্তান নিয়া পরিবারের পাঁচ জন চলতাম, দুই মেয়ে এক ছেলের সংসারে আমার স্বামীই ছিল এক মাত্র ভরসা। আমার সব শেষ হইয়াগেল। সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাসার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, দুই পুলিশ এসআই শফিক ও কনস্টেবল জুলফিকারকে কোজড করা হয়েছে। তাদের যায়গায় এসআই ইলিয়াস কে দেওযা হয়েছে। কেরানীগঞ্জ থেকে আসা সিএনজি ড্রাইভার সুমন বেপারীকে আটক করা হয়েছে।

============

সিরাজদিখানে পুলিশের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর অভিযোগ : ২ পুলিশ কোজড

সিরাজদিখানে কামাল শেখ(৪৫) নামে একজন রাজ মিস্ত্রী সিএনজি চাপায় নিহতের ঘটনায় সোমবার সকাল সারে ১১টায় বাড়ৈইখালী শেখরনগর নীমতলা রাস্তা অবরোধ করে পুলিশের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেছে শেখেরনগর এলাকাবাসী। ঘটনার শেখেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত এসআই শফিক ও কনস্টেবল জুলফিকারকে কোজড করা হয়েছে এবং গ্রেফতার করা হয়েছে সিএনজি ড্রাইভার সুমন কে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ববিবার রাত ৮টার সময় ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে আসা এক সিএনজি শেখরনগর কালী মন্দিরের সামনে যাত্রী নামিয়ে দ্রুত চলে যাওয়ার সময় শেখরনগর পুলিশ ক্যাম্পের সামনে দায়িত্বরত দুই পুলিশ সিএনজি ড্রাইভারকে সিগন্যাল দিলে সিএনজি ড্রাইভার সুমন সিএনজি নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যেতে চাইলে দৌড়ে দুই পুলিশ সিএনজিতে ওঠে। পুলিশ সিএনজি থামাতে চাইলে রাস্তায় দাড়িয়ে থাকা শেখরনগর ঘনশ্যামপুর গ্রামের মৃত মেখ তৈমদ্দির ছেলে শেখ ধনু ও শেখরনগর দক্ষিন হাটী গ্রামের মৃত নূরু মঝির ছেলে কামাল শেখ সিএনজির সাথে ধাক্কা খেয়ে রাস্তার পাশে বিদ্যুতের খুটির সাথে মাথায় ও বুকে চাপলেগে নাক-মুখ দিয়ে রক্ত বের হয়ে অজ্ঞান হয়ে পরে।

সাথে সাথে এলাকার ও দোকানের লোকজন তাদেরকে প্রথমে মিডফোর্ড পরে ঢাকা মেডিকেল নেওয়ার পর কর্তব্যরত ডাক্তার কামালকে মৃত ঘোষনা করেন। আপর জন ঢাকায় ভর্তি শেখ ধনুর অবস্থা আশংকাজনক। শেখরনগর ৬নং ওয়ার্ড সদস্য এমএ বারেক বলেন, পুলিশ সিএনজিতে ওঠে ধস্তাধস্তি না করলে কামাল গাড়ি চাপায় মারা যেতো না। গাড়ি কেনই বা ওরা সিগ্নেল দিয়ে থামাতে গেলো। এই অসহায় পরিবার কিভাবে চলবে।

প্রত্যক্ষদর্শী দোকানদার শামীম বলেন, ঘটনার মাত্র কয়েক মিনিট আগে নাস্তা খাওযার বিল দিয়ে আমার হোটেল থেকে বের হয় ধনু শেখ ও কামাল দুজনে। হঠাৎ সিএনজি টা ওদের দুই জনকে চাপা দিল। মুহূর্ত্বে রক্তে এই জায়গাটা ভাইসা গেল। নিহতের স্ত্রী কুসুম বেগম বলেন, আমারা দিন আনি দিন খাই, তিনটি সন্তান নিয়া পরিবারের পাঁচ জন চলতাম, দুই মেয়ে এক ছেলের সংসারে আমার স্বামীই ছিল এক মাত্র ভরসা। আমার সব শেষ হইয়াগেল।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাসার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, দুই পুলিশ এসআই শফিক ও কনস্টেবল জুলফিকারকে কোজড করা হয়েছে। তাদের যায়গায় এসআই ইলিয়াস কে দেওযা হয়েছে। কেরানীগঞ্জ থেকে আসা সিএনজি ড্রাইভার সুমন বেপারীকে আটক করা হয়েছে।

বাংলাপোষ্ট

Comments are closed.