সিরাজদিখানে গরু মোটাতাজাকরণে ব্যবহৃত হচ্ছে বিষাক্ত হরমোন

mirkadim cowকোরবানির ঈদ বাজারকে সামনে রেখে উপজেলায় গরু মোটাতাজাকরণের হিড়িক পড়েছে। স্থানীয় হাতুড়ে চিকিৎসক ও নিুমানের ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধির পরামর্শে বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ প্রয়োগের মাধ্যমে অল্প সময়ে গরু মোটাতাজা করা হয়। কঙ্কালসার গরু ক্রয় করে বিষাক্ত হরমোন, ইনজেকশন ও রাসায়নিক ওষুধ প্রয়োগ করে গরু মোটাতাজা করে হাটে বিক্রি করলেও দেখার কেউ নেই।

কোরবানির হাটে এসব গরু চড়া দামে বিক্রি হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. উলফাতারা বেগম জানান, প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী গরু মোটাতাজা করলে ওই গরুর মাংস শরীরের ক্ষতি করে না। কিন্তু স্টেরয়েড দিয়ে মোটা করা গরুর মাংস মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর। প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. জহির উদ্দিন জানান, অনৈতিক উপায়ে বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে যেন গরু মোটাতাজা করা না হয় সে ব্যাপারে স্থানীয় কৃষকদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

যুগান্তর

Comments are closed.