মুন্সীগঞ্জের ৩টি উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

padma agrasiপদ্মানদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত
পদ্মানদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী, লৌহজং ও শ্রীনগর উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্ল¬াবিত হয়ে পড়েছে। পদ্মানদীর ভাগ্যকূল পয়েন্টে বৃহস্পতিবার ৪ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে পদ্মার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে তবে এখনও বিপদসীমার ১২ সেন্টিমিটার নীচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানা গেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্রিষ্ট সূত্র জানায়, গত ২/১ দিনে পদ্মানদীর মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরের ভাগ্যকূল পয়েন্টে পানির স্তর ৬ দশমিক ১৪ সেন্টিমিটার ছিল। বৃহস্পতিবার ৪ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে ভাগ্যকূল পয়েন্টে পানির স্তর ৬ দশমিক ১৮ সেন্টিমিটার হয়। তবে পানির বিপদজনক স্তর ৬ দশমিক ৩০ সেন্টিমিটার। যা এখনও বিপদসীমার ১২ সেন্টিমিটার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে শ্রীনগরের ভাগ্যকূল পয়েন্টে।

এছাড়া, গত এক সপ্তাহ ধরে পদ্মার ভাগ্যকূল পয়েন্টে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় পদ্মা নদী ঘেঁষা মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী, লৌহজং ও শ্রীনগর উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে পড়েছে। একাধিক সূত্র জানায়, মুন্সীগঞ্জে বসবাসরত ৩ টি উপজেলার নিম্নাঞ্চলের সাধারণ মানুষজন পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

এবিনিউজ