মাওয়া ফেরিঘাটের কাছে ট্রাকের সঙ্গে পিকআপের ধাক্কা

acidমাওয়া ফেরিঘাটের কাছে ট্র্যাকের সঙ্গে একটি পিকআপভ্যানের ধাক্কা লেগে ট্রাকে রাখা এসিডের ড্রাম পিকআপের উপর পরে এসিডদগ্ধ হয়ে পিকআপের চালক মারা গেছে এবং অপর দুইজন আহত হয়েছে। মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

তাদের তাৎক্ষণিক আহতাবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পিকআপের চালক সাইদুর রহমান (৩৫) দুপুরে মারা যায়। অন্য আহত দুইজন হলেন- মো. রাজু (১৮) এবং আবদুল মান্নান (২০)।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. পার্থশংকর পাল সাইদুর রহমানের মৃত্যু নিশ্চিত করে বলেন- রাজুর ৬ শতাংশ আর মান্নানের ২৫ শতাংশ এসিডে ঝলসে গেছে। রাজুর অবস্থা আশঙ্কামুক্ত হলেও মান্নানের অবস্থা এখনও নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না।

আহত রাজু বলেন, তারা তেজগাঁও থেকে বিস্কিট ভর্তি করে বরিশাল যাচ্ছিলেন। যাওয়ার পথে মাওয়া ফেরিঘাটের এক কিলোমিটার আগে যানজটে পিকআপ আটকে যায়। এক পর্যায়ে সামনে থাকা একটি এসিডভর্তি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। তারপর ট্রাকের উপর থেকে একটি এসিডভর্তি ড্রাম আমাদের পিকআপের সামনের গ্লাস ভেঙে ভেতরে ঢুকে যায় এবং আমাদের শরীর এসিডে ঝলসে যায়।

রাজু আরও জানায়, তারা রায়েরবাজার সাদেক খান রোডে থাকে। নিহত সাইদুর রহমানের বাবার নাম মৃত নুরুদ্দিন সরকার। তাদের বাড়ি বরিশালের গৌরনদী।

দ্য রিপোর্ট