পিনাক-৬ শনাক্ত হলেও উদ্ধার সম্ভব হয়নি

sk5নৌপরিবহণমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, পদ্মায় ডুবে যাওয়া লঞ্চ এম এল পিনাক-৬ নদীর তলদেশে শনাক্ত করা গেলেও প্রচণ্ড ঘূর্ণি স্রোতের কারণে ডুবুরিরা নামতে সাহস পাননি। এ কারণে লঞ্চটি উদ্ধার সম্ভব হয়নি। রোববার সকালে পটুয়াখালীতে ‘কুয়াকাটা লাইট হাউস’ ও কোস্ট রেডিও স্টেশনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে নৌমন্ত্রী বলেন, যে আমেরিকা মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতা করেছে, ৭৪ সালে দুর্ভিক্ষ সৃষ্টি করেছে, সেই আমেরিকার মুখাপেক্ষী হয়ে কোনো লাভ হবে না। দেশ চলবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ও সংবিধান অনুসারে। তিনি আরো বলেন, ২০১৩ সালে আন্দোলনের নামে তৎকালীন ১৯-দলীয় জোট যে সহিংসতা চালিয়ে, মানুষ হত্যা করেছে, তাদেরও বিচারের সম্মুখীন করা হবে।
sk5
সমুদ্র পরিবহণ অধিদপ্তর আয়োজিত অনুষ্ঠানে সংস্থার মহাপরিচালক এম জাকিউর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মাহবুবুর রহমান, নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব শেখ সোহরাব হোসেন। লাইট হাউস প্রকল্পের মাধ্যমে সমুদ্রে চলাচলকারী জাহাজ ও মাছ ধরার ট্রলারের নিরাপত্তা নিশ্চিত ও জাতীয় আয় বৃদ্ধি পাবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এ প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৭ কোটি ৮৯ লাখ টাকা।

উল্লেখ্য, কাওড়াকান্দি থেকে মাওয়া ঘাটে যাওয়ার পথে গত ৪ আগস্ট পদ্মায় ডুবে যায় পিনাক-৬ নামের লঞ্চটি। আড়াই শতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে যাওয়া লঞ্চের ৪৭ জন যাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে ৬১ জন। লঞ্চডুবির পর থেকে দেশের সবচেয়ে প্রযুক্তসমৃদ্ধ জাহাজ দিয়ে উদ্ধারকাজ চালানো হয়। আট দিন পর লঞ্চটির শনাক্তকরণ কাজ স্থগিত ঘোষণা করে প্রশাসন।

ওই ঘটনায় বেপরোয়া যান চলাচল, ভাড়ার জন্য অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও অবহেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগ এনে পিনাকের মালিক আবু বকর সিদ্দিক, লঞ্চের চালক নবী হোসেন ও কাওড়াকান্দি ঘাট পরিচালনাকারী আবদুল হাই সিকদারসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে লৌহজং থানায় মামলা করেন বিআইডব্লিউটিএর পরিবহণ পরিদর্শক জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া। পরে লঞ্চমালিক ও তার ছেলেকে গ্রেফতার করা হয়।

স্বদেশ