পদ্মা সেতু প্রকল্প : ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দাবি

Padma-Bridgeপদ্মা বহুমুখী সেতুর প্রকল্পাধীন এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত ভূমির মালিক ও ভূমিহীন ঘর-বাড়ির মালিকদের মধ্যে অনেকেই ক্ষতিপূরণ পাননি। আবার কেউ নাম মাত্র আংশিক ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন বলে জানিয়ে ন্যায্য ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন দক্ষিণ চর জানাজাত ও বাখরকান্দি এলাকার ভুক্তভোগীরা।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মঙ্গলবার দুপুরে ‘ক্ষতিপূরণ আদায় সমন্বয় ও সংগ্রাম কমিটি’ আয়োজিত এক মানববন্ধনে তারা এ সব দাবি জানান।

সরকারি বিভিন্ন কর্মকর্তাদের অন্যায়, বেআইনিভাবে স্বজনপ্রীতি, অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে বিভাগীয় কমিশন কোর্টে আপিল করেও কোনো ধরনের ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন না বলেও জানান তারা।
Padma-Bridge
মানববন্ধনে সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহাবুবুল আলম দুলাল বলেন, ‘ভুক্তভোগীদের নির্দিষ্ট দলিলাদি থাকা স্বত্ত্বেও আংশিক ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়েছে বা অনেকেই পায়নি। বরং ক্ষতিগ্রস্থরা ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দৌড়ঝাপ করে হয়রানির স্বীকার হচ্ছেন।’

উত্তর বাখরকান্দি এলাকার শাহজাহান ফরাজী দ্য রিপোর্টকে জানান, ‘আমার কোথায় কি আছে তিনবার করে লিখে নিয়ে গেলেও এতদিনে মাত্র ২০ শতাংশ ক্ষতিপূরণ পেয়েছি।’

নূরজাহান বিবি বলেন, ‘আমার তিনটা ঘর সেতুর কাজে দখল নিয়ে নিচ্ছে কিন্তু আমি এক টাকাও পাইনি।’

এরকম আব্দুর রহিম, শামীম, খালেক মোড়ল, মফিজের মতো প্রায় অর্ধশতাধিক ভুক্তভোগী মানবন্ধনে অংশ নিয়ে একই কথা জানান। এ সময় পদ্মা সেতু হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়ে প্রকৃত ক্ষতিপূরণ পেতে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।

দ্য রিপোর্ট