পদ্মার `নাট্যকার’ এখন শ্রীঘরে!

raselপদ্মা নদীতে ডুবে যাওয়া এমএল পিনাক-৬ লঞ্চের যাত্রী সেজে চারদিন পর জীবিত উদ্ধারের নাটক সাজানোর ঘটনায় আটক রাসেলের (৩৪) বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে মামলা করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জে লৌহজং থানার এসআই মো. সজল বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

রাসেল মাদারীপুরের কুকড়াই গ্রামের আলাউদ্দিন চোকদারের ছেলে। শনিবার বিকেলেই তাকে প্রতারণার অভিযোগে করা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠায় পুলিশ। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

লঞ্চডুবির ঘটনার চারদিন পর শুক্রবার বিকেলে তার জীবিত উদ্ধার হওয়ার দাবি নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। ওইদিন ২ যুবকের কাঁধে ভর দিয়ে খুড়িয়ে খুড়িয়ে মাওয়ায় পুলিশ কন্ট্রোল রুমে যান রাসেল।
rasel
এ সময় তিনি দাবি করেন‑ তার নাম সারোয়ার রহমান। বাবার নাম লুৎফর রহমান। বাড়ি ঢাকার মিরপুর। মাদারীপুর থেকে পিনাক-৬-এ চেপে আসছিলেন মাওয়ায়। পদ্মায় লঞ্চডুবির পর গত চারদিন নির্জন চরে অচেতন অবস্থায় পড়ে ছিলেন। জ্ঞান ফিরে কোনোমতে মাওয়ায় পৌঁছেছেন তিনি।

পরে পুলিশ ও গণমাধ্যমকর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে তার জীবিত উদ্ধারের নাটক ধরা পড়ে যায়।

এ সময় পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, সহায়তা হিসেবে জেলা প্রশাসনের দেওয়া ২০ হাজার টাকা ও সরকারি সহায়তার লোভেই এ উদ্ধার নাটক সাজিয়েছিলেন তিনি।

ঢাকাটাইমস