আবাসিক হোটেলে অভিসার! ধরা খেয়ে বিয়ে!

odauপ্রেমের পরিণতী হলেই আবাসিক হোটেলে গোপন অভিসার করতে গিয়েছিলো এক প্রেমিক যুগল। অতঃপর ধরা খেয়ে সোজা বিয়ের পিঁড়িতে বসতে হলো। পরিবারের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে নারায়ণগঞ্জ শহরে।

শুক্রবার দুপুরে সদর উপজেলা পরিষদে পরিবারের লোকজনের উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে পড়ানো হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকার রূপায়ন আবাসিক হোটেল থেকে ওই চারজনসহ মোট ১৬ জনকে আটক করে পুলিশ।

পরে হোটেলটি সিলগালা করে দেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গাউছুল আজম। এসময় ৫ যৌনকর্মীকে ১ হাজার টাকা, খদ্দের মাসুদকে ৩ হাজার, হোটেল কর্মচারী নাসিরকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া হোটেল কর্মচারী উজ্জলকে এক মাস ও রাজুকে ১৫ দিনের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের হাজীগঞ্জ এলাকার মো. সজিবের সঙ্গে একই এলাকার সোহানার প্রেমের সম্পর্ক ৫ বছর ধরে। কিন্তু গোপন অভিসারে আটক হওয়ার পর বিয়ে করতে বেকে বসেন প্রেমিক সজীব। এসময় আত্মহত্যার হুমকি দিয়ে তাদের ৫ বছরের প্রেমের সম্পর্কের কথা খোলাসা করেন সোহানা। পরে ৫ লাখ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে দেওয়া হয়।

অন্যদিকে মুন্সিগঞ্জের পাচঘরিয়াকান্দির মো. আকাশের সঙ্গে মানিকনগর এলাকার জয়নাল আবেদীনের মেয়ে ডলি আক্তারের দীর্ঘদিনের প্রেম চলছিল। এই দুজনের অভিভাবকের উপস্থিতিতে ৩ লাখ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে দেওয়া হয়।

বিডিমেইল