শিলই গ্রামে দুইপক্ষের সংঘর্ষ : আহত ১০

sssssমুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার শিলই গ্রামে বৃহস্পতিবার রাতে হামলায় ৪ ব্যক্তি জখমসহ ১০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর জখম কামরুল ব্যাপারী (২৮), হুমায়ুন ব্যাপারী (৩৭) ও মহিউদ্দিন খানকে (৩৬) মূমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি এবং রুহুল আমিন খানকে (৪২) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। অতিরিক্ত পুলিশ মেতায়েন করা হয়েছে।

সদর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম ও স্থানীয় সূত্র জানায়, রাত সোয়া ৮টার দিকে শিলই মাছ বাজারে বসে কয়েকজন গল্প করছিল। আকস্মিক সলেমান জমাদ্দার কয়েকজন লোক নিয়ে এসে কামরুল ব্যাপারীকে পেছন থেকে ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। সাথে থাকা অন্যরা তাকে রক্ষা করতে গেলে তাদেরকেও কোপায়। কিছু বুঝে উঠার আগেই রক্তাক্ত অবস্থায় চারজন মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। লোকজন ছুটে আসলে দু’পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তি ও সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে আরও ৬ জন সামান্য আহত হয়।

আশপাশের লোকজন রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে তাদের হাসপাতালে নিয়ে আসে। এই নিয়ে ব্যাপারী গোষ্ঠীর ও জমাদ্দার গোষ্ঠীর মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে এই দু’গোষ্ঠীর সাথে বিরোধ চলে আসছিল। রক্ষা করতে গিয়ে খান গোষ্ঠীর লোকজনও আহত হয়। তাই খান গোষ্ঠী এখন ব্যাপারী গোষ্ঠীর সাথে যুক্ত হয়েছে। পুলিশ জানায়, সলেমান জমাদ্দার হত্যা মামলার আসামি। এই ঘটনায় এখনও কোন মামলা হয়নি, পুলিশ অপরাধীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

কালের কন্ঠ