প্রশাসনের বাধা উপেক্ষা, নদীর জায়গায় স্থাপনা নির্মাণ চলছেই

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার চিত্রকোট ইউনিয়নের খারশুর বাজারের পাশে ইছামতীর শাখা নদী দখল করে বিপণিবিতান ও বাংলো নির্মাণ কাজ অব্যাহত রয়েছে৷ স্থানীয় এক প্রভাবশালী প্রশাসনের স্থগিতাদেশ উপেক্ষা করে নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে৷

গত ৪ জুন প্রথম অালোয় ‘নদী দখল করে মার্কেট ও বাংলো নির্মাণ’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ায় বিকেলেই উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নির্মাণ কাজ বন্ধ করেন৷ এ সময় তিনি বিপণিবিতানের সামনে লাল নিশানা টানিয়ে কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন৷

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রশাসনের বাধা উপেক্ষা করে রাতে বেলা ওই নিশানা সরিয়ে প্রভাবশালী রবিন টেক্সটাইলের মালিক ব্যবসায়ী আবু খায়ের মো. শাখাওয়াতের লোকজন আবারও কাজ শুরু করেছেন৷

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাবেক এক জনপ্রতিনিধি বলেন, চিত্রকোট ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শামসুল হুদা ওরফে বাবুলের ইন্ধনে প্রশাসনের নির্দেশ উপেক্ষা করে কাজ চলছে৷

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নূর মহল আশরাফী বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে কাগজপত্র নিয়ে উপজেলায় আসতে বলা হলেও তাঁরা আসেননি৷ তবে নির্দেশ উপক্ষো করে কাজ করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷

সাখাওয়াত দেশের বাইরে থাকায় তাঁর সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি৷ তাঁর চাচাতো ভাই স্বপন মোল্লা বলেন, নিজেদের জায়গাতেই তাঁরা কাজ করছেন৷ শামসুল হুদা বলেন, তিনি ভবনের মালিক নন৷ ঠিকাদার হিসেবে তিিন মালিকপক্ষের নির্ধারণ করা সীমানায় কাজ করছেন৷

প্রথম আলো