টঙ্গীবাড়ী আড়িয়ল ভূমি অফিসের সীমাহীন দুর্নীতি

oniomব.ম শামীম: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার আড়িয়ল ভূমি অফিসে সীমাহীন দূর্ণীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই সম্পত্তি একাধিক ব্যাক্তির নামে নামজারী, পর্চা উঠাতে গিয়ে ভোগান্তি এবং নামজারী কেসের নামে হাজার হাজার টাকা হতিয়ে নিচ্ছে উক্ত ভুমি অফিসটি।

এছাড়া দালালদের দৌড়াত্ব পুড়ো অফিস জুড়ে। সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায়, অফিসের সামনের চেয়ারে বসে আছে উক্ত অফিসের দালাল উপজেলার ধীপুর গ্রামের আক্তার, দেলোয়ার হোসেনসহ আরো কয়েকজন। ভূমি অফিসে লোকজন আসতেই এগিয়ে যাচ্ছে তাদের দিকে। তাদের সমস্যার কথা শুনে দালালরা নিয়ে যাচ্ছে অফিস কর্তৃপক্ষের সামনে। উপজেলার ধীপুর গ্রামের আবুল হাসেম সেখ জানান, আমার নামে নামজারী করা ১৪ শতাংশ জমি ভূমি অফিস টাকা খেয়ে জব্বার সেখের নামে নামজারী করে দিয়েছে। আমি ভূমি অফিসে গেলে তারা আমাকে মিস কেস করতে বলছে।

এছাড়া করিম পাগলসহ অন্যান্য অনেকের জমি টাকার বিনিময়ে অপরের নামে নামজারী করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আপরকাঠি গ্রামের এবায়দুল হক জানান, আমি পর্চা উঠানোর জন্য এক সপ্তাহ ধরে ঘুরতাছি, আমাকে পর্চা দিচ্ছেনা। যারা দালালদের মাধ্যমে কাজ করছে তাদের কাজ দ্রুত করে দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া খাজনার নামে অধিকহারে টাকা আদায়, তদন্তছাড়া টাকার মূল্যে নামজারী করছে উক্ত ভূমি অফিসটি। অফিসের তহসিলদার আবুল হাসেম ১২টার পূর্বে অফিসে আসেননা বলে জানান এলাকার লোকজন। সহকারী তহসীলদারদের দিয়েই চলে কাজকর্ম। এছাড়া প্রায় তাকে অফিসে পাওয়া যায়না বলে ভুক্তভোগীরা জানান।

এ ব্যাপারে আবুল হাসেম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে সে জানায়, আমি অফিসে আছি, দালালদের তো আমাদের প্রয়োজন নেই। আপনি অফিসে এসেন সরাসরি কথা বলবো।