ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে মাইক্রোবাসে এক যুবককে জবাই করে হত্যা

pavelআরিফ হোসেন: ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে মাইক্রোবাসে আপেল (৩২) নামে এক যুবককে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে তারা লাশটি রাস্তার পাশে ফেলে মাইক্রোবাস নিয়ে ঢাকার দিকে পালিয়ে যায়। শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে উপজেলার উমপাড়া বটতলা নামক স্থান থেকে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।

শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান জানান, আপেল পেশায় টাইলস মিস্ত্রি। তার বাড়ি কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী এলাকায়। গত এক সপ্তাহ আগে কাজের সন্ধানে সে শ্রীনগর আসে। সন্ধ্যা সাতটার দিকে সে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। লাশটি উদ্ধারের সময় রক্ত ঝরছিল দেখে পুলিশ ধারণা করছে দুর্বৃত্তরা তাকে যাত্রী হিসাবে মাইক্রোবাসে তুলে নেওয়ার পর পরই জাবাই করে রাস্তার পাশে ফেলে পালিয়ে যায়।

===============

মুন্সীগঞ্জে যুবকের লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরের ষোলঘর এলাকা থেকে গলা কাটা অবস্থায় পাভেল নামের এক যুবকের (৩০) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার রাতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসাপাতাল মর্গে পাঠানোর হয়েছে।

নিহত পাভেল কুড়িগ্রাম জেলার মুজাফ্ফর হকের ছেলে। সে ঢাকায় থাকতো বলে জানা গেছে।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাবুবুর রহমান জানান, এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পাভেল নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে।
pavel
প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অন্য কোথাও গলা কেটে হত্যার পর লাশ শ্রীনগরের ষোলঘর এলাকার একটি ডোবায় ফেলে রেখে গেছে।

তিনি আরো জানান, ন্যাশনাল আইডি কার্ড দেখে তার পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। কি ভাবে বা কেন এ হত্যাকাণ্ড হয়েছে তা উদঘাটনের জন্য তদন্ত শুরু হয়েছে।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর