মুন্সীগঞ্জের নদীতে ইলিশ মাছ ধরা শুরু

hilsa১ মে থেকে পদ্মা-মেঘনা নদীতে ইলিশ মাছ ধরতে পারবে জেলে সম্পদায়ের লোকজন। নিষেধাজ্ঞা গত ৩০ এপ্রিল থেকে উঠে গেছে। স্বস্তি ফিরে এসেছে জেলে পরিবারে লোকজনের মধ্যে। তবে অভয়াশ্রমের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হলেও বাধা জালের উপর এবং ছাই দ্বারা পাংগাসের পোনা নিধন বন্ধে অভিযান চলবে।

সরকার জাতীয় মৎস্য সম্পদ ইলিশ সংরক্ষণ ও উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মুন্সীগঞ্জ জেলাসহ দেশের তিনটি প্রধান নদী অঞ্চলকে জাটকা রক্ষা কর্মসূচির আওতায় নদী এলাকায় অভয়াশ্রম ঘোষণা করে মাছ ধরাা নিষিদ্ধ করে। মার্চ-এপ্রিল এ দুই মাস সাধারণ জেলেদের জন্য মাছ ধরা বন্ধ ছিলো। নিষেধাজ্ঞার সময়ে কর্মসূচি সফল করার জন্য প্রশাসনের নজরদারী যেমন পরিলক্ষিত হয়েছে তেমনি নদীতে দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র।

সরজমিনে মার্চ-এপ্রিল দুই মাস অভিযান চালিয়ে পদ্মা-মেঘনা নদীতে দেখা যায়, প্রতিদিন মুন্সীগঞ্জের কোথাও নাা কোথাও থেকে জেলে সম্পদায়ের লোকজন র্নিবিচারে জাটকা নিধন করেছে। তবে প্রশাসনের জাটকা রক্ষার অ্যাকশন অপরদিকে অভয়াশ্রম এলাকায় এক শ্রেণীর জেলেদের জাটকা-ইলিশ শিকার। আড়ৎদারি, বেচা-কেনা, পরিবহন সবই চলেছে।

এ সময় মুন্সীগঞ্জ জেলার ধলেশ্বরী ও মেঘনা নদীর অন্তর্গত এলাকায় বিপুল পরিমাণ জাটকা নিধন এবং ইলিশও শিকার করা হয়।

এবিনিউজ