শ্রীনগরে জামায়াতে ইসলামীর ৯ নেতা কর্মী আটক

jamatআরিফ হোসেন: শ্রীনগরে একটি বাগান বাড়ীতে গোপন বৈঠকের সময় জামায়াতে ইসলামীর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও শ্রমিক কল্যান ফেডারেশনের সভাপতি সহ ৯ নেতা কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে ষোলঘর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তবে তাদের আত্মীয় স্বজনদের দাবী তারা ঐ বাগানের ভেতর একটি ঘরের মধ্যে মিলাদ মাহফিলে যোগ দিয়েছিল। শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান জানান, তারা ঐ ঘরে গোপন বৈঠকে মিলিত হয়েছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, উপজেলা জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ডা: এম, এ লতিফ, শ্রমিক কল্যান ফেডারেশনের উপজেলা সভাপতি লাকনুর রহমান, রোকন সদস্য শাহিন মোল্লা, সদস্য আলী নুর, মোশারফ শেখ, চান্দু মিয়া, ওমর ফারুক মোল্লা, হাতেম মোল্লা ও সেলিম শেখ। রাত সাড়ে দশটা নাগাদ এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ ঐ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করছে।

===============

মুন্সীগঞ্জে জামায়াতের ৯ নেতাকর্মী আটক, হাতবোমা উদ্ধার

নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলা জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারিসহ দলটির নয় নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

এরা হলেন- উপজেলা জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি এমএ মালেক (৫৪), জামায়াত নেতা মো. লাকনুর রহমান (৩০), কর্মী মো. চান্দু মিয়া (৪২), মো. আলী নূর (৪৩), মো. মোশারফ শেখ (৫৫), মো. শামীম মোল্লা (৪১), হাজী মো. ওমর ফারুক মোল্লা (৫০), হাতেম আলী (৪২) ও সেলিম শেখ (২৮)।

শ্রীনগর থানার ওসি শেখ মাহবুবুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ষোলঘর এলাকায় জামায়াত কর্মী মোশারফের বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়।

তিনি বলেন, “ওই বাড়িতে গোপন বৈঠকে মিলিত হয়ে তারা নাশকতার পরিকল্পনা করছিল। এ সময় পুলিশ গেলে তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে দুটি হাতবোমা ছুড়ে মারে।”

এরপর সাত থেকে আটজন পালিয়ে গেলেও ওই নয়জনকে আটক করা হয়।

ওই বাড়ি থেকে ১১টি হাতবোমা উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

বিডিনিউজ