ভবিষ্যতে চোরাগোপ্তা কর্মসূচি পালিত হবে : খোকা

khokaবিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা বলেছেন, নিয়মতান্ত্রিক এবং সাংবিধানিক কর্মসূচিতে বাধা দিলে ভবিষ্যতে চোরাগোপ্তা কর্মসূচি পালিত হবে। আর এর নির্মম পরিণতি ক্ষমতাসীনদের ভোগ করতে হবে।

দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা, খুন ও গুমের প্রতিবাদে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি না পাওয়ায় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে খোকা এ কথা বলেন। জাতীয় প্রেসক্লাবে মিলনায়তনে সোমবার দুুপুরে বিএনপি এক প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। খোকা দলীয় নেতাকর্মীদের বলেন, চোরাগোপ্তা কর্মসূচির জন্য তৈরি থাকুন।

বিএনপির কোন প্রতিবাদ কর্মসূচি দেখলে সরকার আতঙ্কিত হয়ে ওঠে দাবি করে খোকা আরো বলেন, গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে বাধা দিয়ে কোনো স্বৈরাচারি সরকারই ক্ষমতা স্থায়ী করতে পারেনি। গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান বিএনপির এ নেতা।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে ব্যর্থ হলে ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হবেন।

খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন প্রসঙ্গ টেনে খোকা আরো বলেন, সেদিন যেভাবে মামলার চার্জ গঠন করা হয়েছে তা বিচারের নামে অবিচার করা হয়েছে। এটি একটি ফরমায়েশি অভিযোগ গঠন। এর মাধ্যমে সরকার বিচার বিভাগের নূূন্যতম স্বাধীনতাকেও ভূলুণ্ঠিত করেছে। এটা অন্যায় আর তোষামোদি সিদ্ধান্ত।

নেতা-কর্মীদের প্রতি আন্দোলনের প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বেগম জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মামলা কোন স্বাভাবিক বিষয় না। এর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে এলাকায়-এলাকায়, পাড়া-মহল্লায় সংগঠন গড়ে তোলোর নির্দেশ দেন তিনি।

ঢাকারিপোর্টটোয়েন্টিফোর