মাওয়ায় বাসে ছাত্রলীগ নেতা অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের মাওয়ায় বাসে শেখ রাসেল (৩০) নামে ছাত্রলীগের এক কেন্দ্রীয় নেতা অজ্ঞাত পার্টির খপ্পরে পড়েছেন। তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক। তাকে অচেতন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে মাওয়া ফেরিঘাট এলাকায় বিআরটিসি বাসের মধ্য এ ঘটনা ঘটে।

শেখ রাসেল শরীয়তপুর জেলার জাজিরা থানার রুপবাবুরচর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে।

শেখ রাসেলের বন্ধু আরাফাত জানান, বুধবার সকালে ভাতিজার সুন্নাতে খাৎনার দাওয়াত খেতে গুলিস্থান থেকে বিআরটিসির বাসে ওঠে শেখ রাসেল। পরে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা তাকে চেতনা নাশক দিয়ে অচেতন করে। এরপর মাওয়া ফেরিঘাট এলাকায় বাসটি গেলে রাসেল বাসের মধ্যে অচেতন হয়ে পড়েছিল।

পরে তার আত্মীয় স্বজনরা তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে লৌহজং হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভর্তি করা হয়। তিনি তার পরিবারের সাথে রাজধানীর আজিমপুর মৌচাক কলোনীতে বাস করেন।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা