হাটলক্ষীগঞ্জ সংলগ্ন ধলেশ্বরী পাড়ে অষ্টমী স্নান উৎসব

snanমুন্সীগঞ্জের হাটলক্ষীগঞ্জ এলাকা সংলগ্ন ধলেশ্বরী নদীতে শুরু হয়েছে মহাতীর্থ অষ্টমী স্নান উৎসব। মুন্সীগঞ্জ অষ্টমী স্নান উৎসব পরিষদ এ স্নান উৎসবরে আয়োজন করে।

শুল্কা তিথি অনুযায়ী রোববার রাত ১টা ৫৪ মিনিট ৫২ সেকেন্ডে লগ্ন শুরু হয়ে সোমবার দুপুর ৩টা ৪৬ মিনিট ৪৬ সেকেন্ডে এ স্নানের সময় কাল এ তিথিতে স্নান করে এক মনে ঈশ্বরের কাছে ক্ষমা ভিক্ষা প্রার্থনা করলে ঈশ্বর সব পাপ ক্ষমা করে দেয় এবং সে ঈশ্বরের অপার কৃপা লাভ করে।

এ বিশ্বাসে শত শত নারী-পুরুষ, শিশু-বৃদ্ধ স্নান করতে আসে ধলেশ্বরীতে।
snan
কথিত আছে যে, ব্রহ্মপুত্রের জল পাপমুক্ত করেছিল পরশুরাম মুনিকে। আর মহাভারতের বর্ণনা মতে পরশুরাম মুনি পাপমুক্তির জন্য ব্রহ্মপুত্রের নদের যে স্থানে স্নান করেছিলেন তা লাঙ্গলবন্দে অবস্থিত। আর এ বিশ্বাস নিয়ে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা লাঙ্গলবন্দসহ ধলেশ্বরী নদীতে স্নান করে ব্রহ্মার সন্তুষ্টি লাভের মাধ্যমে পাপমোচন হয়। পরশুরাম মুনির পাপ থেকে মুক্ত হওয়ার কথা স্মরণ করে শত’ শত’ বছর ধরে এ অঞ্চলে অষ্টমী স্নান অনুষ্ঠিত হয়।

এ স্নান উপলক্ষে অনুষ্ঠিত ধলেশ্বরীর নদীর পারে হরেক রকমের পসরা নিয়ে বসেছ মেলা। মেলায় সাংসারিক প্রয়োজনের যাবতীয় দ্রব্যাদিসহ ছোট ছেলেমেয়েদের খেলনা সামগ্রীর সমাহার ছিল লক্ষণীয়। তাছাড়া এ মেলাতে খাবারদোকান গুলোতে রয়েছে পিঠি, নিমকি,লাড্ডুসহ হরেক রকম খাবার।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান, এ স্নান উৎসব হিন্দুসম্প্রদায়ের হলেও সকল সম্প্রদায়ের লোকজনের উপস্থিতি রয়েছে। এখানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সকল প্রস্তুতির ব্যবস্থাও রয়েছে।

বার্তা২৪