ছবির সঙ্কটে শায়না আমিন

saদর্শকপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী শায়না আমিন ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই চলচ্চিত্রে স্থায়ী আসন গড়ার জন্য মরিয়া। বছরকয়েক আগে রুবাইয়াত হোসেনের ‘মেহেরজান’ ছবির মাধ্যমে বড়পর্দায় নাম লেখান তিনি। এরপর ‘পিতা’ এবং ‘পুত্র এখন পয়সাওয়ালা’ ছবি দুটিতে অভিনয় করেন। এর মধ্যে ‘পুত্র এখন পয়সাওয়ালা’ ছবিটি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। তবে পরপর তিনটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেলেও বর্তমানে তার হাতে কোনো ছবি নেই। এমনকি নতুন কোনো ছবির প্রস্তাবও পাচ্ছেন না বলে জানিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে শায়না আমিন যাযাদি বিনোদনকে বলেন, ‘ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই চলচ্চিত্রে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার স্বপ্ন দেখছি। এখনো সে স্বপ্নই সবসময় মনের মাঝে লালন করে চলছি। কেননা তারকা খ্যাতির ক্ষেত্রে চলচ্চিত্র হচ্ছে সবচেয়ে বড় মাধ্যম। এর মাধ্যমে দর্শকের কাছে খুব সহজেই পেঁৗছানো যায়। তাই চলচ্চিত্রকেই অভিনয়ের মূল আরাধনা হিসেবে বেছে নিয়েছিলাম। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে মনে হচ্ছে সেই আশার দরজার ঘুণ ধরেছে। তবে আমি চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে সব সময় প্রস্তুত রয়েছি। বাণিজ্যিক ধারার ছবি হলেও আমার কোনো আপত্তি নেই। তবে সে ক্ষেত্রে কিছুটা মানসম্পন্ন স্ক্রিপ্ট হতে হবে।’
sa
ছবির কাজ হাতে না থাকায় শায়না বর্তমানে ছোটপর্দার নাটক-টেলিছবিতে কাজ করছেন। বৃহস্পতিবার তিনি ‘একটি জাদুর বাক্স এবং কয়েকটি প্রজাপতি’ শিরোনামের খ- নাটকে অভিনয় করেছেন। নাটকটি রচনা-পরিচালনা করেছেন দেব জ্যোতি ভক্ত। পারিবারিক গল্পের এ নাটকে শায়না আম্বিয়া চরিত্রে অভিনয়কে করেছেন। এ ছাড়া তিনি ইতোমধ্যে ‘কে ভাসাবে সাদা মেঘের ভেলা’ ও ‘তিতা মিঠা মধুচন্দ্রিমা’ নামের দুটি নাটকের কাজ শেষ করেছেন। মাতিয়া বানু শুকুর রচনায় ‘তিতা মিঠা মধুচন্দ্রিমা’ নাটকটিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম। বিয়ে-পরবর্তী মধুচন্দ্রিমার গল্প নিয়েই মূলত এর কাহিনী গড়ে উঠেছে।

যাযাদি