ইউএনও-কে লাঞ্ছিত করলো এএসআই!

upzilalogoগজারিয়ায় সহকারী রির্টানিং অফিসার ও গজারিয়া ইউএনও ড. এটিএম মাহবুব-উল-করিম শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছে এক এএসআই। শনিবার বিকালে ইইএনও অফিসের মাঠে শতশত লোকের সামনে ইউনিফর্ম গায়ে দেয়া অবস্থায় এমদাদুল হক নামে পুলিশের একজন সহকারী উপ পরিদর্শক(এএসআই) এই ঘটনা ঘটায়। বিষয়টি রির্টানিং অফিসারকে লিখিতভাবে জানানোর পর তাৎক্ষনিক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। একই সাথে নির্বাচন কমিশনকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নজরুল ইসলাম সরকার রাতে ঘটনাস্থলে স্বাক্ষ্য গ্রহণের পর জানান, “ঘটনাটি বিষয়কর। পুলিশ সদস্য এমদাদুল হক কলারে ধরে ইএনওকে কিল ঘুষিসহ অকথ্য ভাষায় গালিগালজ করেছে। তদন্ত রিপোর্ট শিঘ্রই নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হবে।”

ইউএনও ড. এটিএম মাহবুব-উল-করিম জানান, “ইউএনও অফিস থেকে প্রিজাইডিং অফিসারদের দেয়া নির্বাচনী সামগ্রীতে নাম্বার না থাকায় তিনি লোক ডেকে নাম্বারিং করান। পরবর্তীতে এই এএসআই একটু পরে এসে এই নাম্বার ছিড়ে ফেলে দেয় এবং কেন এই নাম্বারিং করেছে গালিগালাজ করে। ইউএনওর নির্দেশে নাম্বারিং করেছেন বলতেই আরও উত্তেজিত হয়ে উঠে। কাছে থাকা ইউএনও বিষয়টি জিজ্ঞেস করাতেই তিনি আমাকে শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।”

এদিকে এএসআই এমদাদুল হক বলেন, “ইউএনও আমাকে গালি দিয়েছে হারামজাদা বলে। তাই আমিও তাকে গালিগালজ করেছি। তবে প্রথমে আমি চিনতে পারিনি। শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত করার ঘটনা অস্বীকার করেন এই এএসআই।”

জেলা রির্টানিং অফিসার মো. সারোয়ার মুর্শেদ চৌধুরী রাত সাড়ে ৮টায় জানান, “সহকারী রির্টানিং অফিসারের লিখিত অভিযোগ পাওয়া মাত্র নির্বাচন কমিশনকে অবগত করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই রিপোর্ট পাঠানোর পর নির্বাচন কমিশন পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। রবিবার এই উপজেলার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।”

স্বদেশ