মিরকাদিম এলাকায় পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা অত্যন্ত জরুরী

Policeতাওহীদ সরদার: মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মিরকাদিম একটি ঐতিহ্যবাহী নদী বন্দর। এ নদী বন্দরে এক সময় স্টিমার ভিড়তো। কলিকাতার সাথে তখন সরাসরি বাণিজ্যের মাধ্যম ছিল এ বন্দরটি। তাই এ বন্দরের গুরুত্ব অবধাপন করে এখানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে একটি পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা হয়েছিল।

১৯৯৫ পরবর্তী সময়ে পুলিশ ফাঁড়িটি এখান থেকে উঠিয়ে দেয়া হয়। আর তার পর থেকেই এলাকাটি একটি অপরাধ জোন হিসেবে আবির্ভূত হতে থাকে। সন্তাসী কার্যকলাপ থেকে শুরু করে মাদকে সয়লাব হয়ে যায় মিরকাদিমের পুরো এলকা। উঠতি বয়সের ছেলেদের রক্ষা করতে বাবা-মায়ের গলদঘর্ম হলেও নেশার সহজলভ্যতার কারনে তাদের ফেরানো যাচ্ছে না।

তাই মিরকাদিমের আইনশৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে এখানে পুনরায় পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপনের জন্য জনৈক সুনীল চন্দ্র দে বিগত ১৪/২/১৩ তারিখে স্বরাষ্ট্রসচিব, আইজিপি, ডিআইজি ঢাকা রেঞ্জ, পুলিশ সুপার মুন্সীগঞ্জ, ওসি মুন্সীগঞ্জ বরাবর আবেদন করেন।

কিন্তু সে আবেদনে কোন সাড়া না পেয়ে তিনি জনস্বার্থে ২৪/২/১৩ তারিখে মহামান্য হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেন। যার নং ১১২২২/১৩। বিচারপতি মর্জা হোসাইন হায়দার এবং বিচারপতি মো. খুরশিদ আলম সরকার এর সমন্বয়ে এক বেঞ্চে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে কেন মিরকাদিম এলাকায় ফাঁড়ি স্থাপন করা হবে মর্মে এক রুল জারী করেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত মিরকাদিমের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা হয়নি।

এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ, পৌরসভার মেয়র ও মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের মাননীয় সাংসদ এডভোকেট মৃনাল কান্তি দাসের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।