২ উপজেলায় জাতীয় নির্বাচনের আমেজ

upzilalogoউপজেলা নির্বাচন ঘিরে মুন্সীগঞ্জ সদর ও শ্রীনগরে জাতীয় নির্বাচনের আমেজ বিরাজ করছে। বৃহস্পতিবার এ ২ টি উপজেলায় ভোট। সদরে জয়-পরাজয়ের বাতায়নে বড় দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপিতে ভোটের অংক জটিল উঠেছে।

এ নিয়ে ভোটার-সমর্থক ও দলীয় নেতাকর্মীরা করছেন চুলচেরা বিশ্লেষন। সদরে মোট ভোটার ২ লাখ ৫৬ হাজার ৬’শ। ভোট কেন্দ্র ১’শ ৬ টি। শ্রীনগরে ভোটার হচ্ছে ১ লাখ ৮৯ হাজার ৭’শ ৫২ জন। ভোট কেন্দ্র ৭৩ টি।
সদরের কে জিতবেন-




জেলা সদরে আ’লীগের হেভিওয়েট চেয়ারম্যান প্রার্থী আনিসুজ্জামান আনিস (দোয়াত-কলম) গেলো নির্বাচনের জয় ধরে রাখতে মড়িয়া। তিনি ব্যক্তি ইমেজ দিয়ে ভোটারের মন কেড়ে নিচ্ছেন। সঙ্গে আছে দলের ভোট ব্যাংক।

ক্ষমতার দাপট ও প্রভাবমুক্ত ভোট হলে আমিই জয়ী হব- আলাপকালে এ কথা বলেন বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশারফ হোসেন পুস্তি (আনারস)। সদরের রামপাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তিনি। দলের বিশাল ভোট ব্যাংক সঙ্গে থাকলে পুস্তির জয় কঠিন নয় বলে মনে করছেন তার সমর্থকরা।

ভোটের আগেই চরাঞ্চলের ৫ টি ইউনিয়নে আ’লীগের একক আধিপত্য বিস্তারসহ আ’লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রভাব খাটানোর বিস্তর অভিযোগ তোলেছেন তিনি।
বিএনপির বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী শহর বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সালাউদ্দিন খান স্বপন (মোটর সাইকেল) প্রচারনায় সবার থেকে এগিয়ে আছেন।

এখানে আ’লীগের ভাইস-চেয়ারম্যান (পুরুষ) প্রার্থী হচ্ছেন- আমির হোসেন গাজী (উঁড়োজাহাজ) ও মহিলা প্রার্থী নাজমা বেগম (কলস)। বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান (পুরুষ) প্রার্থী শহীদুল ইসলাম (তালা) ও মহিলা প্রার্থী রুবি আক্তার (হাঁস)।
শ্রীনগরে সুবিধা জনক বিএনপি-




জেলার শ্রীনগরেও ভোটের অংক জটিল। তবে বিএনপির একক চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব মমিন আলী (দোয়াত-কলম) সুবিধা জনক অবস্থায় রয়েছেন। বিদ্রোহী নিয়ে বিপাকে আ’লীগ। দলের চেয়ারম্যান প্রার্থী সেলিম আহমেদ ভুঁইয়া (আনারস) ও বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকির হোসেন (ঘোড়া) এবং ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের চেয়ারম্যান প্রার্থী এরফান শিকদার মোটর সাইকেল প্রতীকে মাঠে রয়েছে।

এদিকে, ভাইস-চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে বিএনপিতে আওলাদ হোসেন (তালা) ও সেলিম হোসেন খান (বৈদ্যুতিক বাল্ব), আ’লীগের শেখ মো: আলমগীর (উড়োজাহাজ) এবং মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান আছিয়া আক্তার রুমু (কলস) ও বিএনপির জাহানারা বেগম (হাঁস)।

যমুনা নিউজ