মাওয়া-কাওড়াকান্দি ঘাটে যানজট পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

mawa-bg20140124171102মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের উভয়পাড়ে পারাপারের অপেক্ষায় সহস্রাধিক যানবাহন আটকা পড়ে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (রাত সাড়ে ৮টা) উভয়ঘাটে এ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচলে ধীরগতি, ফরিদপুরের আটরশির বিশ্বজাকের মঞ্জিলের ওরস শরীফের ভক্তদের অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে এ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বাংলানিউজকে জানান, মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে শুক্রবার সকাল থেকেই আটরশিগামী অতিরিক্ত গাড়িসহ অন্যান্য গাড়ির চাপ মাওয়া প্রান্তে বাড়তে থাকে। যা রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ৬ শতাধিক ছাড়িয়ে যায়। কুয়াশার কারণে ধীর গতিতে গাড়িগুলো পার করা হলেও নতুন গাড়ি যোগ হয়ে যানজট থেকে যাচ্ছে অপরিবর্তিত।


এতে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে মাওয়াঘাটে যানজট কমছে না। মাওয়া ঘাট থেকে শ্রীনগর উপজেলার দোগাছি পর্যন্ত যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, কাওড়াকান্দি ঘাটের অবস্থাও একই রকম। সেখানেও ঢাকাগামী বিভিন্ন পণ্যবাহী ট্রাক ও গাড়ি আটকা পড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘাটে ৪ শতাধিক গাড়ি আটকা পড়েছে বলে জানা গেছে। উভয়ঘাটে এ যানজটের কারণে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা। সব মিলিয়ে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের উভয়ঘাটে সহস্রাধিক গাড়ি আটকে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।
mawa-bg20140124171102
মাওয়া নৌ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মো. হাফিজুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, বর্তমানে মাওয়া প্রান্তে পণ্যবাহী ট্রাকসহ চার শতাধিক যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। নতুন নতুন যানবাহন যুক্ত হওয়ায় যানজট পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে।

তিনি আরও জানান, ঘন কুয়াশায় ফেরি চলাচলে বিঘ্ন ও যানবাহনের বাড়তি চাপের কারণে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। যানজট পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

কাওড়াকান্দি ঘাটের ট্রাফিক কর্মকর্তা উত্তম কুমার বাংলানিউজকে জানান, এ ঘাটে দুই শতাধিক গাড়ি আটকা পড়েছে। যানজট নিরসনের চেষ্টা করা হচ্ছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর