অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যার দায়ে ২ জনের মৃত্যূদন্ড

courtব.ম শামীম: মুন্সীগঞ্জে অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধু মায়া আক্তার (২০) কে যৌতুকের দাবীতে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে ২ জনকে মৃত্যূদন্ড দিয়েছে আদালত। একই সাথে তাদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুুপুরে মুন্সীগঞ্জ অতিরিক্ত দায়রা ও জজ আদালতের বিচারক মো. শাহজাহান কবির এ আদেশ দেন।

২০০৬ সালের ১৪ই জানুয়ারী সকাল ৮ টায় ১ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে ৭ মাসের অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধূ মায়া আক্তারের শরীরে কেরসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় সিরাজদিখান উপজেলার ফুলহার গ্রামের শশুর বাড়ির লোকজন। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০০৬ সালের ১৯ জানুয়ারী তার মৃত্যূ হয়।


এ ঘটনায় নিহতের পিতা আইয়ূব আলী বাদী হয়ে সিরাজদিখান থানায় মামলা দয়ের করেন। মামলায় নিহতের স্বামী সালাহউদ্দিন, শশুর আলাউদ্দিন, শাশুরী হারুন নেছা, ননদ লুৎফা এবং ননদের স্বামী নাজিমউদ্দিনকে আসামী করা হয়। আদালত এ মামলায় ননদ লুৎফা এবং ননদের জামাই পলাতক আসামী নাজিমউদ্দিনকে নিহতের মৃত্যূকালিন ঘোষনা এবং অন্যান্য স্বাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে মৃত্যূদন্ড প্রদান ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে এবং বাকি ৩ আসামীকে বেকসুর খালাস প্রদান করে। মৃত্যূদন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামী নাজিমউদ্দিন সিরাজদিখান উপজেলার কমলপুর গ্রামের নিজামউদ্দিনের ছেলে।

উক্ত মামলাটি রাষ্ট পক্ষ্যে এডভোকেট সুলতানা আক্তার বিউটি পরিচালনা করেন। তিনি এই রায়ে সন্তুষ্ট প্রকাশ করে জানান, এ রায়ের মাধ্যমে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।