মাওয়ায় অজ্ঞান পার্টি খপ্পড়ে পরে যুবক অচেতন

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে শনিবার অজ্ঞান পার্টির খপ্পড়ে পড়ে দুই ব্যক্তি সর্বস্ব খুইয়েছেন। এদের মধ্যে অজ্ঞাত পরিচয় একজনের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে পাশ্ববর্তী শ্রীনগর উপজেলার যোষঘর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। অচেতন থাকায় তার পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। তবে মাদারীপুর জেলার শিবচরের মদবর চর গ্রামের বাচ্চু মাদবরের ছেলে হারুন মাদবর (৩২) অসুস্থ অবস্থায় মাওয়া ঘাটে পড়ে ছিল।

পুলিশ ও ঘাট সূত্রে জানা যায়, ঢাকার গুলিস্থান থেকে ইলিশ পরিবহনের একটি বাসে চড়ে মাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেয় মাদবর চরের হারুন ও অপর এক যাত্রী। পথিমধ্যে হকারের কাছ থেকে বিস্কুট কিনে খেয়ে তারা অচেতন হয়ে পড়ে। অজ্ঞান পার্টির সদস্যের(হকার) বিস্কুট খেয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে পাশের সিটে বসে থাকা অপর অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা তাদের টাকা পয়সয়া-মোবাইল ফোন কৌশলে ছিনিয়ে নিয়ে কেটে পড়ে। বাসটি মাওয়ায় আসলে বাস হেলপাররা তাদেরকে অজ্ঞান অবস্থায় বাস স্ট্যান্ডে ফেলে রাখে। পরে পুলিশ এসে তাদেরকে উদ্ধার করে ।

মাওয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই হাফিজুর রহমান জানান, অজ্ঞান পার্টির খপ্পড়ে পড়া দুই জনের মধ্যে এক জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তার অত্মীয় স্বজনকে খবর দেয়া হয়েছে। অপরজন অচেতন থাকায় তার পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। তাকে চিকিৎসার জন্য শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। জ্ঞান ফিরলে তাকে বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা