মুন্সীগঞ্জ-১,২ বিএনপি রাজপথে নয় দেখা যায় পোস্টারে কিংবা ব্যনারে

bnpসারা দেশে সরকারবিরোধী তুমুল আন্দোলন, ব্যাপক সহিংসতা এবং এসবে এ পর্যন্ত ৩০০ জনের বেশি নিহত হলো ।হরতালের চেয়েও কঠোর অবরোধ কর্মসূচি টানা চললেও আন্দোলনের ছিটেফোঁটাও নেই মুন্সীগঞ্জ ১ ও ২ আসনে।

আর রাজপথ অবরোধ তো দূরের কথা মুন্সীগঞ্জ ১ ও ২ আসনে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনগুলোর অনেক নেতাকে ঝটিকা মিছিলেও দেখা যায়নি। মাঝে মাওয়া মহাসড়কে বিচ্ছিন্ন ককটেল নিক্ষেপ আর গাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। সেই ঘটনা কারা ঘটিয়েছে তা সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিতে পারে নি স্থানীয় নেতাকর্মীরা।


মুন্সীগঞ্জ বিএনপির জেলা কমিটি, থানা কমিটি, ওয়ার্ড এমনকি ইউনিটের নেতারাও কৌশলের অজুহাতে আত্মগোপনে থাকছেন। শীর্ষ নেতাদের পাশাপাশি মাঝারি, এমনকি নিচুসারির নেতারাও রাজপথে নেই। তারাও নিজেদের গা-বাঁচিয়ে চলছেন। কেউ ঝুঁকি নিতে চাচ্ছেন না। রাজপথে না নামলেও আত্মগোপন কৌশল কাজে লাগিয়ে ঠিকই অনেকে ব্যবসা-বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন।

রাজপথে না দেখা গেলেও তাদের দেখা মেলে রাজপথের মোরে মোরে কিংবা দেয়ালা দেয়ালে, হয়তো পোস্টারে কিংবা ব্যানারে ব্যানারে। ব্যানারে ব্যানারে জানান দিচ্ছে খালেদা জিয়া ভায় নাই রাজপথ ছাড়ি নাই।

বিগত বিএনপি-জামায়াত সরকারের সময় নানা আর্থিক সুযোগ-সুবিধা নেয়ার অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। তারপরও শুধু আন্দোলন সংগ্রাম সফল করতে এসব নেতাকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

দলীয় নেতাদের এরুপ কর্মকান্ড মেনে নিতে পারছে না দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা। তাই দলের প্রতি তারা ক্ষুব্ধ।

মুন্সিগঞ্জ টাইমস