মামলা হচ্ছে লঞ্চ মালিকের বিরুদ্ধে

b meatফলোআপ
মুন্সীগঞ্জ লঞ্চ ঘাট সংলগ্ন ধলেশ্বরী নদীতে কোস্টগার্ডের হাতে ৪০০ কেজি হরিণের মাংস ও ১৪৯ টি গলাকাটা অতিথি পাখি উদ্ধারের ঘটনায় লঞ্চ মালিকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হচ্ছে। এদিকে, উদ্ধারকৃত হরিণের মাংস ও অতিথি পাখি ঢাকার মহাখালী বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপণা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগের অধীনে শনিবার গাজীপুরস্থ জঙ্গলে মাটির নিচে পুতে ফেলা হয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপণা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগের রেঞ্জ অফিসার মো. ফজলুল হক।


সূত্র মতে, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে নারায়ণগঞ্জের পাগলা কোস্টগার্ড অভিযান চালিয়ে “এম ভি ফারহান-৩” নামের ঢাকাগামী একটি লঞ্চ থেকে ওই মাংস ও গলাকাটা পাখি উদ্ধার করে সহকারী বণসংরক্ষক কর্মকর্তা উম্মে হাবিবার কাছে হস্তান্তর করে পাগলা কোস্টগার্ডের স্টেশন কমান্ডার সাব. লেফটেনেন্ট হাসানুর রহমান । এরপর এগুলো উম্মে হাবিবা হস্তান্তর করেন বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপণা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগে।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপণা ও প্রকৃতি সংরক্ষন বিভাগের রেঞ্জ অফিসার মো. ফজলুল হক জানান, উদ্ধারকৃত হরিণের মাংস ও অতিথি পাখিগুলো শনিবার গাজীপুরস্থ তাদের নিয়ন্ত্রাধীণ একটি জঙ্গলের মাটির নিচে পুতে ফেলা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা করার এখতিয়ার আমাদের নেই। তাই তদন্তপূর্বক আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে হরিণের মাংস ও গলাকাটা অতিথি পাখি বহনের দায়ে অভিযুক্ত লঞ্চ মালিকের বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে মামলা করা হবে বলে তিনি জানান।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা