ছাত্রদল কর্মী নিহতের ঘটায় অপমৃত্যু মামলা

kankonনির্বাচনের আগের রাতে জেলার টঙ্গিবাড়ী উপজেলার দক্ষিন শিমুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে বোম হামলা করতে গেলে পুলিশের তাড়ায় পুকুরের পানিতে ডুবে মারা যায়, কংকন সৈয়াল (২৫) নামের এক ছাত্রদল কর্মী।

পুলিশ রোববার সকাল ৮টার দিকে পুলিশ শিমুলিয়া গ্রামের একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ।পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে শিমুলিয়া গ্রামের একটি ভোট কেন্দ্রের অদূরে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটনায় বিএনপির নেতাকর্মীরা। ধারনা করা হচ্ছে, পুলিশের ধাওয়া খেয়ে পালাতে গিয়ে পুকুরে ঝাপ দেয় যুবকটি। প্রচন্ড শীতের কারনে সে মারা গেছে বলে পুলিশের দাবী।

সোমবার সকালে কাঠাদিয়া-শিমুলিয়া ইউপির সদস্য শাহীন মাল বাদী হয়ে টঙ্গিবাড়ী থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন। নিহত যুবক কংকন সৈয়াল (২৬) টঙ্গিবাড়ী উপজেলার আলদী গ্রামের মৃত আব্দল হক সৈয়ালের ছেলে।

সোমবার দুপুরে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হলে ঠান্ডা জনিত কারনে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বিকেলে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়। সন্ধ্যায় গ্রামের বাড়িতে যুবককে দাফন করা হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ টাইমস