টঙ্গীবাড়িতে সাবেক মহিলা ইউপি সদস্য খুন

paikpara2মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়িতে গৃহকর্তাকে অচেতন করে সাবেক ইউপি সদস্য মাকসুদা বেগম (৫৫)-কে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে গেছে ঘাতকরা। নিহত মাকসুদা বেগম বেতকা ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ছিলেন। এ সময় কিলাররা ঘরে রক্ষিত ৮-১০ ভরি সোনারগহনা ও নগদ ১লাখ ৭২হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে। অচেতন স্বামী আবেদ আলী সরকার (৬৫)-কে রোববার সকালে পুলিশ উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করায়। শনিবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে জেলার টঙ্গীবাড়ি উপজেলার দক্ষিণ পাইকপাড়া গ্রামে বাশের আড়তদার আবেদ আলী সরকারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
paikpara1
টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি (তদন্ত) মো. খলিলুর রহমান জানান, গত মাস দেড়েক আগে উজ্জল ও জুয়েল নামে ঠিকানাবিহীন ২ যুবককে কথিত স্ত্রী পরিচয়ে ২ যুবতীসহ আবেদ আলী সরকার তার দ্বিতল ভবনের নিচতলার একটি রুম ভাড়া দেয়। নিচতলায়ই সাবেক ইউপি সদস্য স্ত্রীকে থাকতেন বাড়ির মালিক আবেদ আলী সরকার । এরই মধ্যে শনিবার দিনের বেলায় বাড়ির ভাড়াটিয়া যুবকদের ২মহিলা সঙ্গী কেটে পড়ে। রাত ১০টার দিকে নিচতলায় ভাড়াটিয়া উজ্জল ও জুয়েল বাড়ির মালিক আবেদ আলী সরকারকে কফির সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে দেয়। এতে আবেদ আলী সরকার অচেতন হয়ে পড়ে। পরে তার স্ত্রী সাবেক মহিলা সদস্য মাকসুদা বেগমকে হত্যা করে স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। রোববার সকাল ৯টার দিকে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে আবেদ আলী সরকারকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। একই সময়ে তার স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে শ্যামল সরকার বাদী হয়ে উজ্জল ও জুয়েলকে আসামি করে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা
========

সাবেক নারী ইউপি সদস্য খুন : টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নিজ বাস ভবনে শোবার বিছানায় হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মাকসুদা বেগম (৫৫) নামে এক সাবেক মহিলা ইউপি সদস্যের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক নারী ইউপি সদস্য। তার বাড়ি পাইক পারা গ্রামে। নিজ ঘরের শোবার বিছানায় লাশের পাশে অচেতন অবস্থায় শোয়া ছিল নিহত ওই নারীর স্বামী আবেদ আলী সরকার (৬০) ও নাতি মুজাহিদ(৯)।

শনিবার দিনগত রাতে নিজ বাড়ির ভাড়াটিয়ারা এই হত্যাকা- ঘটিয়েছে বলে নিহতের স্বজনরা দাবী করেছেন। খুনিরা এ সময় নারী ইউপি সদস্যের ঘর থেকে নগদ ১ লাখ ৭২ হাজার টাকা ও ৫০ ভরি স্বার্ণালঙ্কার নিয়ে পালিয়ে যায়। নিহতের লাশ দুপুর ১২ টার দিকে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। অচেতন ২ জনকে চিকিৎসার জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
paikpara2
নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নিহত সাবেক মহিলা মেম্বারের বাড়িতে ভাড়াটিয়া এই হত্যাকা- ঘটিয়েছে বলে দাবী।

ওই রাতে ভাড়াটিয়ার দুই ভাই মাকসুদার ঘরে বসে রাত ১২টা পর্যন্ত টেলিভিশন দেখেছিল। তারা মাকসুদার স্বামী ও ছেলে সজল(১৯) কে খবারের সঙ্গে অচেতন হওয়ার কোন পদার্থ দিয়েছিল বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। বাড়ির সবাই ঘুমিয়ে পড়লে ভাড়াটিয়া রাজন (৪৫), জুয়েল ও উজ্জ্বল (২২) হত্যাকান্ড ঘটায়। ওই বাড়ি থেকে নগদ ১ লক্ষ ৭২ হাজার টাকা ও ৫০ ভরি স্বার্ণালংকার নিয়ে পলিয়ে যায় ঘাতকরা। তারা ওই বাড়িতে একটি টিনের ঘরে গত ৩ মাস ধরে ভাড়া থাকতো। তাদের বাড়ি ফরিদপুরে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে টঙ্গিবাড়ী থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল মালেক বলেন- নিহতের স্বামী, ৩ ছেলে ও ৩ মেয়ে রয়েছে। বাড়ির ভাড়াটিয়ার সঙ্গে লুট ও অভ্যন্তরিন বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকান্ড ঘটতে পারে। ঘটনার পর-পরই শনিবার দিনগত রাতেই ভাড়াটিয়া পালিয়ে গেছে বলেও দাবী করেন ওসি। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মুন্সিগঞ্জ টাইমস

===========

টঙ্গীবাড়ীতে শ্বাসরুদ্ধ করে বৃদ্ধাকে হত্যা

ব.ম শামীম: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে শনিবার রাতে শ্বাসরুদ্ধ করে মাসুদা বেগম (৫৫) নামের এক বৃদ্ধাকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় আনোয়ার নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার সকাল ১০ টায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।


ঘটনার পর থেকে নিহতের বাড়ির ভাড়াটিয়া রাজন ও উজ্জল পলাতক রয়েছে। টঙ্গীবাড়ী থানার ওসি তদন্ত খলিলুর রহমান জানান, নিহতের স্বামী আবেদ আলী ও মাসুদা বেগম ঘটনার দিন রাতে একই সাথে ঘুমিয়েছিলেন। তাদের অচেতন করে ঘরে চুরী করার সময় নিহত মাসুদা টের পেয়ে যাওয়ায় তাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।